একটা পুরনো ৫০ পয়সার কয়েন দিলেই পাবেন লক্ষাধিক টাকা, রইল তথ্য

নোট বন্দির কথা বললেই ২০১৬ সালের কথা মনে পড়লেও আসলে অচল টাকা সরিয়ে নেওয়া হয়েছে অনেকবারই। আরবিআই একটি বিশেষ সিরিজের টাকা ছাপানো বন্ধ করে দেয় কিছুদিন পরে। আর তারপর ধীরে ধীরে তা বাজার থেকে তুলে নেওয়া হয়। কিন্তু আপনি কি জানেন এই ধরনের অনেক অচল টাকাই আপনাকে করে দিতে পারে লক্ষপতি? এমনই একটি কয়েনের কথা আজ আপনাদের বলব। আপনি নিশ্চয়ই জানেন, অনেক মানুষই পুরনো নোট এবং কয়েন সংগ্রহ করতে ভালোবাসেন। আর সেই সংগ্রাহকদের কাছেই কখনো কখনো মহামূল্যবান হয়ে ওঠে অচল হয়ে যাওয়া টাকাও।

আজ যে কয়েনটির কথা আপনাদের বলব, তা হল একটি ৫০ পয়সার কয়েন। আপনি কি ভাবতেও পারেন এই অচল কয়েকটি এখন অনলাইনে বিক্রি হচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকায়। হ্যাঁ আপনি কি কি শুনেছেন। তবে এই কয়েনটি রয়েছে বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য। আট আনার এই বিশেষ কয়েকটি মুদ্রিত হয়েছিল ২০১১ সালে। আর সেই বছরই সরকার থেকে বন্ধ করে দেওয়া হয় ২৫ পয়সা বা চার আনার কয়েন। সেই কারণেই এই মুহূর্তে সংগ্রাহকদের কাছে এই কয়েন টার মূল্য এতটা। কারণ এরপরে ধীরে ধীরে ৫০ পয়সার কয়েন বাজার থেকে উঠে যায়।

আপনি নিশ্চয়ই ভাবছেন আপনার কাছে এ ধরনের কয়েন থাকলে বিক্রি করবেন কোথায়? তাহলে আপনাকে জানিয়ে রাখি, ইন্ডিয়ামার্ট, ওএলএক্স, ফ্লিপকার্ট সহ একাধিক ই-মার্কেটিং প্লাটফর্মে বিক্রি হয় এধরনের পুরনো কয়েন। যেখান থেকে আপনি চাইলে সংগ্রহও করতে পারেন আর নয়তো বিক্রিও করতে পারেন আপনার কাছে থাকা এ ধরনের বিশেষ পুরনো কয়েনগুলি। খুব সহজেই আপনি অ্যান্টিক জিনিসপত্র বিক্রেতা হিসেবে অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন এই প্লাটফর্মে। আর তারপর আপনার কয়েনের ছবি তুলে পোস্ট করলেই তা পৌঁছে যাবে লক্ষ লক্ষ গ্রাহকের কাছে। ক্রেতাদের সাথেও নিজেই কথা বলতে পারবেন আপনি। তারপর তাদের দেওয়া দাম পছন্দ হলে বিক্রি করতে পারবেন আপনার মূল্যবান কয়েনটি।

Related Articles