আগামী 15 জানুয়ারি থেকে উত্তর প্রদেশের প্রয়াগরাজ অনুষ্ঠিত হতে চলেছে হিন্দু ধর্মের সবচেয়ে বড় মেলা অর্থাৎ কুম্ভমেলা। এই মেলা হয় পাঁচ বছর অন্তর অন্তর। তাই 2013 সালের পরে আবার এ বছর এই মেলা হওয়ার উপক্রম হয়েছে। তাই উত্তর প্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ সরকার এই মেলা আয়োজনে কোন রকম ত্রুটি রাখতে নারাজ। সমগ্ৰ শহরকে সাজানো হয়েছে এক অন্য ভূমিকায়। সমগ্র শহরটিকে মুড়ে ফেলা হয়েছে নিরাপত্তার চাদরে। এছাড়াও উত্তরপ্রদেশ সরকারের পক্ষ থেকে আরও অনেক আকর্ষণীয় জিনিস থাকবে এবারের কুম্ভ মেলায়। এবারের কুম্ভ মেলা পুণ্যার্থীদের স্নান এর জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এবং যানজোট যাতে না হয় সে জন্য আলাদাভাবে হাজার হাজার পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ করার জন্য।

উত্তরপ্রদেশ সরকার জানিয়েছেন যে এই পূর্ন মেলায় আসার জন্য দেশের সকল নাগরিককে তারা আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। এছাড়াও বিশেষ ভাবে আমন্ত্রন জানানো হয়েছে দেশের অনেক বিশিষ্ট ব্যাক্তিকে। বিদেশে পর্যন্ত আমন্ত্রণ পত্র পাঠানো হয়েছে।

এছাড়াও দেশের বিভিন্ন মানিগুনি ব্যাক্তিদের পাশাপাশি সৌরভ গাঙ্গুলীকে আমন্ত্রণ জানানোর জন্য যোগী আদিত্যনাথ তার মন্ত্রিসভার মন্ত্রী এস পি সিংহ কে পাঠিয়েছেন কলকাতায়। এবং তিনি এসে ভারতীয় ক্রিকেটের প্রাক্তন ক্যাপ্টেন সৌরভ গাঙ্গুলীকে আমন্ত্রণ পত্র দিয়ে গেলেন।

উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ ক্ষমতায় আসার পর এই প্রথমবারের জন্য সেখান হতে চলেছে কুম্ভ মেলা তাই তিনি সেখানে কোনো রকম প্রতি রাখতে নারাজ। ইতিমধ্যেই মেলার বিভিন্ন কাজের জন্য শুধুমাত্র উত্তর প্রদেশ সরকার বরাদ্দ করে দিয়েছে আড়াই হাজার কোটি টাকা। এর সাহায্যে প্রয়াগরাজ সেজে উঠেছে একেবারে অন্যরকম সাজে।

ইতিমধ্যেই দেশ-বিদেশের বিভিন্ন কোনায় কোনায় যোগী আদিত্যনাথ তার প্রতিনিধি দল পাঠিয়ে দিয়েছেন নিয়ন্ত্রণ করার জন্য। এবং সেই অনুযায়ী পশ্চিমবঙ্গে নিমন্ত্রণ করার জন্য তিনি তার মন্ত্রিসভার এক মন্ত্রীর এস পি সিংহ কে পাঠিয়েছেন। এবং তিনি বৃহস্পতিবার ভোররাতে পশ্চিমবঙ্গে এসে উপস্থিত হয়েছেন। তিনি কলকাতা শহরে এসে বেলুড় মঠ, ভারত সেবাশ্রম, বাবা লোকনাথের মন্দির সহ বিভিন্ন বিশিষ্ট ব্যক্তিকে কুম্ভ মেলায় যাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ পত্র দিয়ে যাবেন বলে জানা গিয়েছে।

তিনি সৌরভ গাঙ্গুলীকে নিমন্ত্রণ পত্র দেওয়ার পরে চলে যাবেন সরাসরি রাজ্যপালের কাছে তিনি সেখানে গিয়ে রাজ্যপাল কে মেলায় যাওয়ার জন্য আমন্ত্রণ পত্র দিয়ে সেখান থেকে ফিরে যাবে না আবার উত্তরপ্রদেশে।
#অগ্নিপুত্ৰ