চাঞ্চল্যকর খবর! শুধু হেলিকপ্টার নয়, আরও অনেক ডিলে কংগ্রেস কে টাকা দিয়েছে মামা মিশেল।

দেশের তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট ফের একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য তুলে ধরলেন আদালতের সামনে। এই দিন মূলত এই কথাটি নিয়ে বেশি পরিচর্যা হয় সেটা হল কংগ্রেসের আমলে দেশজুড়ে হয়ে যাওয়া অগাস্টা ভিভিআইপি হেলিকপ্টার কেলেঙ্কারির বিষয়টি।

ক্রিশ্চিয়ানো মিসেল যিনি হলেন হেলিকপ্টার কেলেঙ্কারির মূল অভিযুক্ত তাকে বিশেষ তদন্ত করার জন্য ইডির তরফ থেকে তাকে দুবাই থেকে ভারত পর আনানো হয়। এবং তারপর তার ওপর শুরু হয় তদন্ত কিন্তু এ তদন্ত করতে গিয়ে ইডি জানিয়েছেন যে, শুধুমাত্র হেলিকপ্টার নয় বরং আরো অনেক কেলেঙ্কারির সঙ্গে তিনি যুক্ত এবং তাকে সেই সব করার জন্য টাকা দিয়েছিল তৎকালীন কংগ্রেস সরকার।

ইডির আইনজীবীরা মূল বিচারপতির কাছে জানিয়েছেন যে এই ক্রিস্টিয়ান মিশেলকে দু’দফায় টাকা দিয়েছিলেন তৎকালীন কংগ্রেস সরকার। প্রথম দফায় দিয়েছিলেন ২ কোটি ৪২ লক্ষ ইউরো এবং দ্বিতীয় দফায় দিয়েছিলেন ৬০ লক্ষ ৯৫ হাজার ২৪৫ পাউন্ড।

এছাড়াও ইডির তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে এই মিশেলকে কোনোভাবেই জামিন দেয়া যাবে না। কারণ উনি শুধুমাত্র অগাস্টা নয় এছাড়া আরো অনেক প্রতিরক্ষা দুর্নীতির জন্য টাকা নিয়েছিলেন কংগ্রেস সরকারের কাছ থাকে। এখন যদি তাকে জামিন দিয়ে দেওয়া হয় তাহলে আর সত্যি সকলের সামনে আসবে না। কারণ একদিকে ইনি হলেন ব্রিটিশ নাগরিক অপরদিকে ভারতের সঙ্গে এর কোনো যোগাযোগ নেই। তাই তাকে যদি একবার জামিন দিয়ে দেওয়া হয় তাহলে তার নাগাল পাওয়া যাবে না।

এর আগে ইডি একবার জানিয়েছিল যে মিশেল কে তদন্ত করার সময় তারা মিসেস গান্ধী এবং তার ছেলের নাম পায়। এছাড়াও আরও কংগ্রেসের এক বড় নেতার শর্ট অক্ষর অর্থাৎ AP নামে তাকে চিহ্নিত করে মিছিল। তাই এবার আরো ভালো করে ইডি তদন্ত করে দেখতে চাই যে আর কোন কোন প্রতিরক্ষা কেলেঙ্কারির জন্য কংগ্রেসের কাছ থেকে মিশেল টাকা নিয়ে দেশের ক্ষতি করতে চেয়েছিল।
#অগ্নিপুত্র