in , , ,

ছুটতে তৈরি দেশের সর্বোচ্চ গতি সম্পন্ন “ট্রেন-18”; দেশের উন্নয়নে প্রধানমন্ত্রী মোদীজি অসম্ভব কে সম্ভব করে দেখালেন।

সামনে কুম্ভ মেলা আরে কুম্ভ মেলার আগেই শুরু হতে চলেছে দেশের সব চতুর্থ ট্রেন “ট্রেন-18”, এই টেনটি চলাচল করবে নিউ দিল্লি থেকে বারানসি অব্দি। জানা গিয়েছে যে আর কিছুদিনের মধ্যেই ট্রেনটির উদ্বোধন করবেন দেশের প্রধানমন্ত্রী মাননীয় শ্রী নরেন্দ্র মোদী মহাশয় শুধু প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের অনুমতির অপেক্ষা তারপরেই ট্রেন দৌড়াতে শুরু করবে ভারতবর্ষের মাটিতে।

এই মাসের ১৪ তারিখ থেকে শুরু হচ্ছে কুম্ভ মেলা। বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে যে প্রায়াগরাজে হতে চলা কুম্ভ মেলায় যে বিশেষ অতিথির আসবেন তাদেরকে এই ট্রেনে করে নিয়ে যাওয়া হবে দিল্লিতে কারণ তারা দিল্লিতে গিয়ে প্রজাতন্ত্র দিবস অনুষ্ঠানে যোগদান করবেন।

এই ট্রেনের উদ্বোধনের তারিখটি এখনো পর্যন্ত জানা যায় নি। কিন্তু বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে যে, এই ট্রেনের সর্বোচ্চ গতি আগে বলা হয়েছিল ১৩০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা কিন্তু এখন সেটা বাড়িয়ে করে দেওয়া হয়েছে ২০০ কিলোমিটার প্রতি ঘন্টা।

ট্রেনটিতে প্রতিটি ঋতুতে তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে যথাযথ ব্যবস্থা থাকবে। এবং এটিকে করা হয়েছে 16 কোচ বিশিষ্ট, এই প্রতিটি কোচে বসার জন্য সুপরিকল্পনা করা হয়েছে। এবং প্রতিটি মানুষ সাথে অত্যন্ত আরামদায়ক ভাবে যাত্রা করতে পারেন তার ব্যবস্থা করা হয়েছে ট্রেনে অর্থাৎ এটি অত্যন্ত আরামদায়ক করা হয়ে।

এছাড়াও এই ট্রেনে থাকছে ফ্রী ওয়াইফাই ব্যবস্থা। যাত্রীদের যথাযত খাবারের ব্যবস্থা থাকবে নামমাত্র মূল্যে।সব মিলিয়ে বলায় যায় মোদী সরকারের প্রচেষ্টা ভারতবর্ষের রেল ব্যবস্থায় আসতে চলেছে এক যুগান্তকারী ট্রেন। যা ভারতবর্ষ কে গর্বিত করবে।
#অগ্নিপুত্র

What do you think?

0 points
Upvote Downvote

কংগ্রেসের মহাজোট ভেঙ্গে যেতে চলেছে। কংগ্রেস কে ছেড়ে একা লড়াই করার কথা ভাবছে জেডিইউ।

মোদী সরকারের এই জনকল্যাণমুখী সিদ্ধান্তে খুশির হওয়া দেশের বেকারত্ব মহলে। নুতন বছরে মোদীজি বেকারদের দিলেন এই বহুমূল্য উপহার।