বাতকর্মে আর লজ্জা নয়। ক্যান্সারের ঝুঁকি কমে বাতকর্মের গন্ধে। দেখুন কি বলছেন গবেষকরা।

বাতকর্ম এটা এমন একটা জিনিস যেটা আমাদের প্রত্যেক মানুষেরই কম বেশী হয়ে থাকে। কিন্তু অনেক সময় এই বাতকর্মের জন্য আমাদের অনেক অস্বস্তিকর পরিস্থিতির মধ্যে পড়তে হয়। ঘর ভর্তি লোকের সামনে বা অফিসের কোন দরকারই মিটিং বা পাবলিক প্লেসে যদি বাতকর্ম হয়ে যায় তাহলে আমরা অনেকেই চরম লজ্জার মধ্যে পড়ে যায়। কিন্তু এই লজ্জার মধ্যেও একটা খুশির খবর দিলেন বৈজ্ঞানিকরা। তারা জানালেন যে আর বাতকর্মের জন্য মানুষকে লজ্জা পেতে হবে না, এবার লজ্জার দিন শেষ। এবার এই বাতকর্মই বলে দেবে আপনার শরীর কতটা সুস্থ আছে কিংবা আপনি অসুস্থ কিনা? আসুন এই ব্যাপারে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

ডেনমার্কের এক গবেষক জানিয়েছেন যে বাতকর্ম এলে সেটা কখনো চেপে রাখতে নেই। সেটা চেপে রাখলে তা আমাদের শরীরের ক্ষতি করে তাই বাতকর্ম হলে সেটা করে ফেলা উচিত তা সে যত লজ্জার মুখে পড়তে হোক না কেন। এছাড়াও তিনি জানিয়েছেন যে যারা বেশি স্বাস্থ্যকর এবং ভাল-মন্দ খাবার দাবার খায় তাদের এই বাতকর্ম হবার প্রবণতা বেশি এবং যারা কোনো কারণবশত একটু কম স্বাস্থ্যকর খাবার-দাবার সেবন করেন তাদের শরীরে বাতকর্মের প্রবণতা কম। তাই এই বাতকর্ম শরীরের পক্ষে খুব ভালো কারণ এটাই বলে দেবে আপনার শরীর সুস্থ আছে কিনা? এমন কি শরীরের অনেক রোগ পর্যন্ত এই বাতকর্ম নিয়ন্ত্রণ করে ফেলে।

এছাড়াও বেশ কয়েকটি চমকপ্রবন তথ্য বিজ্ঞানীরা আমাদের সামনে এনেছেন।
যথা:-
১) একজন সুস্থসবল মানুষ ১২ বার বাতকর্ম করেন প্রতিদিন।

২) এই বাতকর্ম ঘুমের সময় বেশি হয়।

৩) ঘন্টায় ১১ কিমি গতিবেগ মানুষের বাতকর্ম হয়।

৪) মহিলারা পুরুষদের থেকে কম বাতকর্ম করে।

এছাড়া ইংল্যান্ডের বেশ কয়েকজন গবেষক জানিয়েছেন যে বাতকর্মের মাধ্যমে যে গ্যাস নির্গত হয় তার ফলে হার্ট আ্যটক, স্টক এমনকি ক্যান্সার পর্যন্ত ঠিক হয়ে যায়।

তাই এবার থেকে নিসংকচে বাতকর্ম করুন এবং সুস্থ থাকুন।
#অগ্নিপুত্র