মধ্যপ্রদেশে কৃষিঋণ মুকুব করার নামে এক মাসেই তিন হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি করল কংগ্রেস সরকার।

কয়েক মাস আগে মধ্যপ্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনে বিজেপি কে পরাজিত করে সরকার গঠন করেছিল কংগ্রেস। মধ্যপ্রদেশের গরিব কৃষকদের কংগ্রেসের তরফে প্রতিসূতি দেওয়া হয়েছিল যে ক্ষমতায় এলে তাদের সমস্ত কৃষিঋণ মুকুব করে দেওয়া হবে। কিন্তু এখন ক্ষমতায় আসার পর কংগ্রেস অন্য সুর গাইছে। কৃষিঋণ তো মুকুব করলো না অপরদিকে কৃষিঋণ মুকুবের নাম করে দুর্নীতি শুরু করেছে কংগ্রেস।

এবার খোদ মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথ নিজে স্বীকার করে নিলেন যে কৃষিঋণ নিয়ে দুর্নীতি করেছে মধ্যপ্রদেশ সরকার। মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তর থেকে বয়ান এসেছে, এবং সেই বয়ানে উল্লেখ রয়েছে যে, কৃষিঋণ মুকুব করার নামে দুই থেকে তিন হাজার কোটি টাকা দুর্নীতি করা হয়েছে।

বেশ কয়েকদিন ধরেই এই খবর সবার সামনে আসছিল যে কৃষিঋণ মুকুব করার নাম করে জালিয়াতি করা হচ্ছে মধ্যপ্রদেশে। আর সেই জন্য মধ্যপ্রদেশের তিন চার টি জেলার কৃষকরা মুখ্যমন্ত্রী কমলনাথের সাথে সাক্ষাৎ করে অভিযোগ জানিয়ে ছিলেন।

তারা অভিযোগ করেন যে, তাদের মধ্যে এমন অনেকজন রয়েছেন যারা কোনোদিন ঋণ নেয় নি কিন্তু তার সত্ত্বেও তাদের নাম চাপানো রয়েছে ঋনের খাতায়। আর তাদের নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা জালিয়াতি করছে কংগ্রেস নেতারা। আবার অনেকের অভিযোগ আমরা মাত্র কয়েক হাজার টাকা ঋণ নিয়েছে কিন্তু আমাদের নামের পাশে লক্ষ লক্ষ টাকার ঋনের হিসাব বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে বাকি টাকা চলে যাচ্ছে কংগ্রেস নেতাদের ব্যাঙ্কে।
#অগ্নিপুত্র