মাত্র একশো দিনে ২০টি রাজ্যে প্রচার চালাবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। লক্ষ্য লোকসভা নির্বাচনে বড় জয়লাভ।

সামনের লোকসভা নির্বাচন নরেন্দ্র মোদীর কাছে বড় পরীক্ষা। সেই পরীক্ষায় ভালো ভাবে পাশ করার জন্য প্রস্তুতি হিসাবে ১০০ দিনে ২০টি রাজ্যে প্রচার চালাবেন। মিশন ১২৩ ব্লু প্রিন্ট। অর্থাৎ গত নির্বাচনে যে ১২৩ টি আসনে হেরেছিল, সেই আসন গুলির ওপর বারতি জোর দিচ্ছে মোদীর নেতৃতাধীন বিজেপি। ১২৩ টি আসনের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ ,ওড়িশা, ও অসম রাজ্যে বিজেপি সাংগঠনিক দিক থেকে দুর্বল। এই তিন রাজ্যে বিজেপির আসন ৭৭টি। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে অসমে ৭টি, ওড়িশায় ১টি, পশ্চিমবঙ্গ ২টি আসন পাই বিজেপি। যদিও সে বছর দেশের অন্য রাজ্যগুলিতে ওঠা ঝড়ে বিজেপির কেন্দ্রে আসতে অসুবিধা হয়নি।
কিন্তু এখন রাজনৈতিক অঙ্ক আলাদা রাজস্থান, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশের বিপর্জয় কাটিয়ে এই রাজ্যগুলির পাশাপাশি উত্তর ভারতের রাজ্যগুলির ওপরও ভালোভাবে খাটতে হবে বিজেপিকে।
সম্প্রতি ওড়িশা ও অসম রাজ্যে কতকগুলি প্রকল্পের সূচনা করেন। যার মধ্যে ২৪ জানুয়ারীর ওড়িশার ভুবনেশ্বরের “ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউড অফ টেকনোলজি” ক্যাম্পাশের উদ্বোধন। এবং পরের দিন যাবেন অসম।সেখানে তিনি ভারতের দীর্ঘতম রেল রোড ব্রিজের ফ্ল্যাগ অফ করেন।
৫ ই জানুয়ারী অসমের ময়ূরভন্জে একটি জনসভা করবেন। কর্মসূচি অনুযায়ী তিনি আবার যাবেন অসমে।
নতুন ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষনের জন্য বিজেপির নতুন কর্মসূচি “পেহেলা ভোট মোদী।” নতুন ভোটারদের কাছে টানার জন্য আগামী ১২ জানুয়ারী প্রচার শুরু করবেন। দিল্লির ন্যাশনাল কাউন্সিল মিটিংয়ে ১৫ হাজার সাংসদ, বিধায়ক, নেতা, মন্ত্রী, কর্মীদের এই নিয়ে বিস্তারিত জানাবেন সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷