in , ,

লোকসভা ভোটের আগে ১৮ হাজার মানুষ যোগদান করলেন বিজেপিতে। এটা দেখার পর ঘুম উড়ে গেল বিরোধীদের।

লোকসভা নির্বাচন ২০১৯। কথাটা শুনলেই টান টান উত্তেজনা চলে আসে মনের মধ্যে। লোকসভা নির্বাচনের দুই মেগা দল বিজেপি এবং কংগ্রেসের প্রস্তুতি ও তুঙ্গে। দুই দলই চাইছে তাদের দলের সদস্য ও সমর্থকের সংখ্যা যাতে বেশি থাকে।

কিন্তু এই সদস্য টানবার দৌড়ে কংগ্রেস কে অনেকখানি পেছনে ফেলে দিয়েছে মোদীজি শাষিত বিজেপি সরকার। সম্প্রতি বিজেপি ও কংগ্রেসে কতজন সদস্য যোগ দিয়েছে , তার ওপর একটি সার্ভে করলে দেখা যায় কংগ্রেসের তুলনায় বিজেপিতে যোগ দেওয়া সদস্যের সংখ্যা বিপুল সংখ্যক বেশি। বিগত কিছুমাসে বিজেপিতে যোগ দেওয়া সদস্যের সংখ্যা দেখে কংগ্রেসের কপালে ভাঁজ পড়ে যাবার জোগান।

শুধুমাত্র কেরালা রাজ্যের ১১টি জেলা থেকে গত ৪ মাসে স্থানীয়, ভারতীয় কমিউনিস্ট, মার্কসবাদী কমিউনিস্ট নেতারা বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। তাদের সংখ্যা ১৮৪০০ জন। আগামী দিনে বাকি দলের সদস্যদেরও বিজেপিতে সামিল করে বিজেপিকে আরো মজবুত করে তুলবেন বলে জানান -কেরালার বিজেপি সভাপতি শ্রীধরন পিল্লাই।

বিজেপি পার্টিতে মানুষের আকৃষ্ট হওয়ার কারন জানানোর জন্য বলেন বিজেপি একটি স্বতন্ত্র রাষ্টীয় পার্টি , যে পার্টিতে মানুষ নিজের মত স্বাধীনতার সাথে প্রকাশ করতে পারে। যা অন্য পার্টিতে করা সম্ভব নয়।
মজবুত সভাপতি শ্রীধরন পিল্লাই এর হাত ধরে দ্রুত দক্ষিন ভারতে নিজেদের জায়গা তৈরি করছে বিজেপি সরকার।

What do you think?

0 points
Upvote Downvote

কেন্দ্রের প্রকল্প গুলি চুরি করে নিজের নামে চালাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যবাসীকে বোকা বানাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস।

রাহুল গান্ধীর নির্দেশেই পাকিস্তান গিয়েছিলেন ন্যবজিৎ সিং সিধু। তাহলে কি পাকিস্তানের সাথে গোপনে যোগাযোগ রাখছে কংগ্রেস।