সাংবাদিকদের অপমান মেনে নিতে পারলেন না মুখ্যমন্ত্রী, একহাতে নিলেন দলীয় সাংসদ মহুয়া মৈত্রকে

রবিবার নদিয়া জেলার গয়েশপুরে তৃণমূল কংগ্রেসের (All India Trinamool Congress) কর্মীসভা থেকে সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে কুরুচিকর মন্তব্য করেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র (Mahua Moitra)। শুধু তাই নয়, তিনি যে সঠিক বলেছেন সেটা প্রমাণ করতে গতকাল নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে সাংবাদিকদের নিশানা করে একটি কুৎসিত মিম শেয়ার করে নিজেই নিজেকে বাহবা দেন তিনি। গোটা রাজ্যের সাংবাদিকরা মহুয়া মৈত্রর এহেন কাজে চরম ক্ষুব্ধ। এবার সেই সাংবাদিকদের পাশে দাঁড়ালেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

আজ রানিগঙ্গের সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক তথা সংবাদমাধ্যমের পাশে দাঁড়িয়ে বলেন, ‘প্রেস, মিডিয়ার যথেষ্ট সন্মান আছে। আমাকে অনেক সাহাজ্য করেছে এই প্রেস, মিডিয়া। কারোর কোথায় কিছু দরকার থাকতে তুলে ধরে এই মিডিয়া।” স্বভাবতই তিনি যে দলীয় সাংসদ মহুয়া মৈত্রর বিতর্কিত মন্তব্যকে সমর্থন করছেন না সেটা আজ ওনার এই বক্তব্য থেকেই স্পষ্ট। আর তিনি এও বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, তিনি সাংবাদিক আর সংবাদমাধ্যমের পাশেই আছেন।

উল্লেখ্য, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভ বলা হয় সংবাদমাধ্যমকে। আর সেই সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে তৃণমূল সাংসদের কুরুচিকর মন্তব্যকে মেনে নিতে পারছে না কেউই। ক্যামেরার সামনে সাংবাদিকদের অপমান করেছেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র আর ওনার এই কুরুচিকর মন্তব্যের বিরুদ্ধে নিন্দার ঝড় উঠেছে সব মহলেই।

টলিউড থেকেও উঠেছে নিন্দার ঝড়। বিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা এবং বিজ্ঞাপন নির্মাতা কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে মহুয়া মৈত্রকে কটাক্ষ করে এক বিস্ফোরক পোস্ট করেছেন। তিনি লিখেছেন, ‘উপার্জনের দুপয়সা তোলাবাজির দুকোটির থেকে অনেক দামী।”

আরেকদিকে, মহুয়া মৈত্রর বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তীও। তিনি ফেসবুকে একটি পোস্টে লিখেছেন। ‘আজ আমি যেখানে আছি সেটা নিজের দক্ষতা, সঠিক সুযোগ, দর্শক এবং সাংবাদিক ও মিডিয়ার সৌজন্যে। প্রত্যেক পেশায় কিছু না কিছু ব্যতিক্রম থাকে। কিন্তু সমস্ত কিছুর জন্য রয়েছে নির্দিষ্ট আইন, তাই না! ‘দুপয়সার সাংবাদিক’ মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করছি।