সংখ্যাগরিষ্ট হিন্দু সম্প্রদায়ের আস্থাকে আরো একবার ঝটকা পেতে হল সুপ্রিম কোর্টের কাছ; হতাশ হলেন হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষজন।
বামপন্থী ,কট্টরপন্থীরা কিছুদিন আগেই  সবারিমালার নিয়মভঙ্গ করে হিন্দুধর্ম নিয়ে খেলা করেছে।সেই ক্ষতপূরনের আগেই সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া আরো একটি ক্ষতর সম্মুখীন হতে হল হিন্দু সমাজকে।

সুপ্রিম কোর্টে গতকাল রাম মন্দিরের শুনানির তারিখ ছিল। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট বিগত বছরগুলির মতোই এবারও শুনানির তারিখ পিছিয়ে দিল তাও ৩০ সেকেন্ডের মাথায়। চিফ গেস্ট রঞ্জন গগৈ জানান ১০ তারিখ একটি বেঞ্চ গঠন হবে। এবং এই বেঞ্চ ঠিক করবে পরবর্তী শুনানির তারিখ। হিন্দুবাদীদের দাবি বিষয়টিকে দীর্ঘ বছর ধরে ঝুলিয়ে রাখার পরিকল্পনা করেছে সুপ্রিম কোর্ট।

আগের তারিখে রাম মন্দির বিষয় টিকে রঞ্জন গগৈ কম গুরুত্বপূর্ন বিষয় বলেছিলেন। অনেকের দাবি সুপ্রিম কোর্টের সুনানির পিছনে কোনো রাজনৈতিক দলের প্রভাব আছে। কিন্তু বুদ্ধিজীবিদের মতে সুপ্রিম কোর্টের বিচার নিয়ে প্রশ্ন তোলা উচিত নয়।

কিছু হিন্দুবাদী ও রাষ্ট্রবাদীর দাবি করেছে যে সুপ্রিম কোর্ট জঙ্গিদের জন্য মধ্যরাতে দরজা খুলে দিলেও ,হিন্দুদের আস্থার জন্য একটুও সময় খরচ করতে রাজি নয়।