শুভেন্দুর দুর্গে বিজেপির থাবা, ১৫০০ কর্মী সমর্থক ছিনিয়ে সংগঠন মজবুত করল বিজেপি

মাই ইন্ডিয়া ডেস্কঃ লোকসভা ভোটের পর থেকে রাজ্যে অন্যদল থেকে বিজেপিতে যোগদানের সংখ্যা বেড়েছে। শাসকদল তৃণমূল থেকে এই যোগদান যেমন হচ্ছে, যোগদান হচ্ছে বামদলগুলি এবং কংগ্রেস থেকেও। দলবদলকারীদের অনেকেই বলছেন, সিপিএম কিংবা কংগ্রেসে থেকে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিরোধী হিসেবে লড়াই করা যাচ্ছে না। একের পর এক মিথ্যা মামলার অভিযোগ করেছেন তাঁরা। তৃণমূলের অত্যাচার এবং দুর্নীতির বিরুদ্ধে লড়াই করতেই দলবদল বলে জানিয়েছেন তাঁরা।

আর সেই ক্রমেই পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুড়ির হেঁড়িয়ায় রাজনৈতিক লাভ হল বিজেপির। বিরোধী দল থেকে প্রায় ১৫০০ জন কর্মী সমর্থক বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। তবে এঁদের বেশিরভাগই সিপিএম কর্মী সমর্থক বলে জানা গিয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেসের হামলার মুখে দল পাশে না দাঁড়ানোয় এই বিজেপিতে যোগ বলে জানিয়েছেন দলবদলকারীরা। শুভেন্দু অধিকারীর গড় পূর্ব মেদিনীপুরে সিপিএম-এ বড় ভাঙন। তবে তারা সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে নয়, বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। বিজেপির দাবি, এদিন দলবদল করেছেন প্রায় ১৫০০ কর্মী সমর্থক। এর ফলে খেজুড়িতে বিজেপির সাংগঠনিক শক্তি অনেকটাই বৃদ্ধি।

 

দলবদল নিয়ে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব লাভ দেখলেও, নিচু তলায় দলত্যাগীদের নিয়ে ক্ষোভ বাড়ছে। জুন মাসে পশ্চিম বর্ধমানের সালানপুর এবং বারাবনি এলাকায় সিপিএম এবং তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান হয়। এই যোগদানের পরেই বিজেপির অন্দরমহলে ক্ষোভপ্রকাশ করেন গেরুয়া শিবিরের স্থানীয় নেতারা। ক্ষোভ সামাল দিতে রাজ্য নেতৃত্বের তরফে জানানো হয়, অন্য দল থেকে বিজেপিতে যোগ দিতে গেলে আগে মণ্ডল সভাপতি এবং ব্লক সভাপতির সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Related Articles