রেলের দুর্দান্ত সিদ্ধান্ত, এবার থেকে প্রতিটি লোকাল ট্রেনেই থাকবে এসি

0
70

মাই ইন্ডিয়া ডেস্কঃ রেলের প্রচণ্ড গরমে নিয়ন্ত্রিত কামরায় যাত্রীরা আরামে যাত্রা করেন। কিন্তু, ট্রেনটি চালানোর দায়িত্বে থাকা চালকদের জন্য থাকে না এসি বা ঠান্ডার ব্যবস্থা। একে ভারতের মতো উষ্ণ ও আর্দ্র দেশ। বাইরের তাপমাত্রার থেকেও ড্রাইভার কেবিনের তাপমাত্রা থাকে আরও বেশি। ফলে বহুক্ষেত্রেই এনার্জি কমে যায় চালকদের। এমনকী হিট স্ট্রোকে মৃত্যুও হয়েছে। এরমধ্যেই হাজার হাজার যাত্রীকে গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার কাজ করেন চালকরা। দেরিতে হলেও চালকদের প্রতি এবার সদয় হল ভারতীয় রেল কর্তৃপক্ষ। প্রতিটি রেলের ইঞ্জিন করা হবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। এমনকী লোকাল ট্রেনের ড্রাইভারের কেবিনেও এসি থাকবে।

সব দিক বিবেচনা করে ট্রেনের চালকের কেবিন শীততাপ নিয়ন্ত্রিত করার সিদ্ধান্ত নিল রেলমন্ত্রক। ইতিমধ্যে হাওড়া ডিভিশনের ৫৪টি লোকাল ট্রেনের মধ্যে ১৬টি ট্রেনের চালকের কেবিনে এসি মেশিন বসানো হয়েছে। ধীরে ধীরে অন্যান্য ট্রেনেও এই পরিষেবা চালু হবে। রেল সূত্রে খবর, নতুন যত ইঞ্জিন তৈরি হচ্ছে সেগুলোর ড্রাইভার কেবিন বাতানুকূল হয়েই আসছে। পুরনো ইঞ্জিনগুলোর মধ্যে যে গুলো আরও বেশিদিন চালানো হবে সেগুলোও বাতানুকূল করা হবে।

রেলের এক আধিকারিক জানান, প্রচণ্ড গরমে অস্বস্তিকর পরিবেশে কাজ করতে হয় ট্রেন চালকদের। তার মধ্যে চালকের কেবিন এয়ারটাইট হওয়ায়, দমবন্ধকর পরিস্থিতি তৈরি হয়। এর ফলে ডিহাইড্রেশন বা হিট স্ট্রোকে অসুস্থ হয়ে পড়েন চালকরা। তাতে দুর্ঘটনার আশঙ্কাও উড়িয়ে দেওয়া যায় না। এইসব দিক বিবেচনা করেই চালকের কেবিনে এসি লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছএ রেলমন্ত্রক। গরমে এসির পাশাপাশি শীতে হিটারের ব্যবস্থাও থাকবে বলে জানান তিনি।

রেলের এই সিদ্ধান্তে অত্যন্ত খুশি চালকরা। তেমনই এক চালকের প্রতিক্রিয়া, ‘কেবিনে এসি একবার চালু হলে, বিনা ক্লান্তিতে অতিরিক্ত সময় ধরে আমরা ট্রেন চালাতে পারব।’