প্রতিটি দেশবাসীর জন্য গর্বের মুহূর্ত, এবার বিদেশের আরও একটি সন্মান পেতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী

মাই ইন্ডিয়া ডেস্কঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আমেরিকার সফরের সময় বিল মেলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশন স্বচ্ছ ভারত অভিযানের জন্য ওনাকে সন্মানিত করবে। এই তথ্য প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের রাজ্য মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং ট্যুইট করে দেন। উনি ট্যুইট করে লেখেন, ‘আরও একটি পুরস্কার, প্রতিটি ভারতীয়র জন্য আরেকটি গর্বের মুহূর্ত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পরিশ্রম আর উন্নতিশীল পদক্ষেপের জন্য গোটা বিশ্বে ওনার প্রশংসা করা হচ্ছে। ওনার আমেরিকা সফরের সময় ওনাকে মিলিন্ডা গেটস ফাউন্ডেশনের তরফ থেকে সন্মান জানানো হবে।”

এর আগে ছয়টি মুসলিম দেশ এবং রাশিয়া আমদের দেশের প্রধানমন্ত্রীকে সর্বোচ্চ সন্মানে সন্মানিত করেছে। সম্প্রতি জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা আর ৩৫-এ তুলে দেওয়ার পর থেকেই পাকিস্তান ভারতের উপরে রেগে লাল হয়ে আছে। আর এর জন্য পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আন্তর্জাতিক স্তরে কাশ্মীর ইস্যু তুলে ভারতকে ঘিরে ফেলার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু ইমরান খানের কপালে অত সুখ নেই, ভারতকে কোণঠাসা করতে গিয়ে পাকিস্তান গোটা বিশ্বের কাছে একঘরে হয়ে গেছে। আর এটা সম্ভব হয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কূটনৈতিক সাফল্যের কারণে।

পাকিস্তানের প্রধান বিরোধী দল ‘পাকিস্তান পিপলস পার্টি” এই কথা স্বীকার করে বলেছে যে, ইমরান খান দেশকে এগিয়ে না নিয়ে আন্তর্জাতিক স্তরে পাকিস্তানকে একঘরে করে দিয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, পাকিস্তান এবার বুঝে গেছে যে, এটা নতুন ভারত, আর এই ভারত দমে না গিয়ে বিশ্বের সাথে তালে তাল মিলিয়ে চলবে। আর ওরা এটাও বুঝে গেছে যে, এবার ভারতের কারণে সন্ত্রাসবাদের সমর্থকেরা গোটা বিশ্বে একঘরে হয়ে যাবে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী যেসব মুসলিম দেশের থেকে পুরস্কার পেয়েছেন সেগুলো হল বাহারিন এ ‘দ্য কিং হামাদ অর্ডার অফ দ্য রেনেসাঁ”। আরব আমিরশাহি থেকে ‘অর্ডার অফ জায়েদ”। প্যালেস্তাইন থেকে ‘গ্র্যান্ড কলার অফ দ্য স্টেট অফ প্যালেস্তাইন”। আফগানিস্তান এর ‘আমির আমিনুল্লাহ খান পুরস্কার”। সৌদি আরব থেকে ‘কিং আবদুলআজিজ শাহ পুরস্কার”। আর মালদ্বীপ থেকে ‘রুল অফ নিশান ইজ্জুদিন” পুরস্কার।

Related Articles