চীনকে শায়েস্তা করতে পাহাড়ে চড়ে ভারতীয় সেনার কাছে প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছে দেশপ্রেমি লাদাখবাসী

জমি মাফিয়া চীনকে (China) শায়েস্তা করতে এবার ভারতীয় সেনার (Indian amry) সঙ্গে লাদাখবাসীরাও একজোট হয়েছে। এই নতুন উদ্যোগের উত্তেজনা বর্তমান সংঘর্ষের মাঝে কালাটোপ পাহাড় থেকে চুষুল গ্রাম পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে।

সেনাদের সাহাযার্থে লাদাখবাসী
চীনা সেনাকে শায়েস্তা করতে এমন কিছু জিনিসের প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল, যার দরুন সাহায্য করতে এগিয়ে এসেছে গ্রামের শতাধিক যুবক এবং স্বেচ্ছাসেবক। কালাটোপ পাহাড়ে এই প্রথমবার একটি সামরিক জমায়েত দেখা যাচ্ছে। এই এলাকায় সেভাবে কোন সংঘর্ষের খবর পাওয়া না যাওয়ার এই পথেই স্থানীয় বাসিন্দারা সেনাদের জন্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র পিঠে করে নিয়ে যাচ্ছে।

গর্বিত বাসিন্দারা
চীনের বিরুদ্ধে সংঘর্ষের মাঝে ভারতীয় সেনাবাহিনীর প্রয়োজনীয় জিনিস স্থানীয় বাসিন্দারা নিজে থেকে পাহাড়ের উচ্চতায় পৌঁছে দিচ্ছে। প্যাংগং লেকের বাসিন্দা এবং টাঙ্গসে আসনের কাউন্সিলর তশি নামগিয়াল জানিয়েছেন, স্থানীয় প্রায় ১০০ যুবক অত্যন্ত গর্বের সাথেই সেনাদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে। তাঁদের প্রয়োজনীয় শয্যা ও অন্যান্য জিনিস সরবরাহ করতে যাচ্ছে।

এগিয়ে আসছেন মহিলারাও
কালাটোপ ছাড়াও গুরুদা পাহাড়ের আশেপাশের গ্রাম থেকে স্বেচ্ছাসেবকরা এগিয়ে এসেছে। তারা খাড়া পাহাড়ি পথে ৩ ঘণ্টা পথ অতিক্রম করতেও পিছপা হচ্ছে না। যুবকদের পাশাপাশি বৌদ্ধ ভিক্ষু, মহিলা এবং কর্মীরাও সেনাদের সাহায্যে এগিয়ে এসেছে। চুষুল গ্রামের মতই মেরাক গ্রামের মানুষেরাও এগিয়ে এসেছে। মেরাক গ্রামের মানুষেরা সেনাদের জল এবং প্রয়োজনীয় পণ্য পৌঁছে দিচ্ছে। এক্সিকিউটিভ কাউন্সিলর কোঞ্চোক স্টানজিনের মতে, স্থানীয় বাসিন্দারা সম্পূর্ণ নিষ্ঠা এবং গর্বের সাথে সেনাদের সাহায্য করছে। পুর্বেও সেনাদের সাহাযার্থে মানুষজন ঠিক এভাবেই এগিয়ে এসেছিল।