ফের জোরালো বোমা বিস্ফোরণ হল পাকিস্থানী সেনা কনভয়ে, ক্রমাগত বাড়ছে মৃতের সংখ্যা।

এবার পাকিস্তানের সেনা কনভয় লক্ষ্য করে করা হল জোরালো জঙ্গি হামলা। এই হামলায় মৃত্যু ঘটেছে কমপক্ষে ৬ জন পাকিস্তানি সেনা জওয়ানের আহত অনেক। এই ভয়াবহ ঘটনাটি ঘটেছে পাকিস্তানের বালচিস্তানের দেরা বুগতিতে। হামলার পরে দায় স্বীকার করে নিয়েছে বালোচের রিপাবলিকান সেনা।

ঘটনা ঘটার পর প্রাথমিক তদন্ত করে জানা গিয়েছে পাক সেনার কনভয়ে হামলা করা হয়েছে রিমোর্ট কন্ট্রোল গাড়ি ব্যবহার করে। এই বিস্ফোরনের জন্য জঙ্গিরা ব্যবহার করেছিল আইইডি বিস্ফোরক। গতকাল রাতে পাকিস্তানি সেনার একটা কনভয় যখন সেই স্থান দিয়ে যাচ্ছিল সেই সময় একটা তীব্র বিস্ফোরণ হয় তখন সময় ছিল রাত ১০ টা। সেই বিস্ফোরনের জোরে কেঁপে উঠে গোটা এলাকা মুহূর্তের মধ্যে উড়ে যায় পাক সেনার একটা গাড়ি। সেই গাড়িতে থাকা ৬ জন পাক সেনার ঘটনাস্থলেই মৃত্যু ঘটে, গুরুত্বর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে বেশ কয়েকজন পাক জাওয়ান।

কিছুদিন আগে পাকিস্তানে এই একই ধরণের একটা আত্মঘাতী জঙ্গি হামলা হয় এই একই স্থানে। সেই হামলার তারিখ ছিল ১৭ ই ফেব্রুয়ারি। হামলায় ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয় পাকিস্তানী জাওয়ানদের, মৃত্যু ঘটে ৯ জন পাক সেনার এবং গুরুতর জখম হয়েছিল ১১ জন পাক সেনা। সেবারের সেই হামলার স্থান ছিল আওয়ারণ জেলা এবং সেবারও হামলার দায় স্বীকার করে নিয়েছিল বালুচিস্তানের রিপাবলিকান গার্ডস তার সাথে বলোচ লিবালেশন ফ্রন্ট।

পাকিস্তানের এই বালচ প্রদেশ বরাবর পাকিস্তান বিরোধী বলে মনে করা হয় কারণ এই স্থানেই বারে বারে সেনা জওয়ানদের ওপর হামলা করা হয়েছে। এই বালচের বাসিন্দাদের অভিযোগ যে পাকিস্তান সরকার অবৈধভাবে তাদের উপর জোর পূর্বক নিয়ন্ত্রণ চালাচ্ছে এবং পাকিস্তানী সেনা জওয়ানরা তাঁদের বাড়িতে ঢুকে মহিলাদের ধর্ষণ করেছে। এই ব্যাপারে তারা ভারত সরকারকে অভিযোগ জানিয়েছে; কিন্তু পাকিস্তান সরকার তারপরেও তাদের উপর বারবার চাপ সৃষ্টি করেছে। তাই তারা নিজেদের স্বার্থের জন্য সেনাবাহিনীর ওপর হামলা করে এবং পাকিস্তান সরকার কে উচিত শিক্ষা দেয়।
#অগ্নিপুত্র

Related Articles