বড় খবরঃ রেশন নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত নিলো মোদী সরকার, উপকৃত হবেন দেশে ৭৫ কোটি গরিব মানুষ

0
156

করোনাভাইরাসের (Coronavirus) কারণে ভারত সমেত গোটা বিশ্বে লকডাউন এর পরিস্থিতি চলে এসেছে। মানুষ খুব প্রয়োজন না হলে বার থেকে বের হচ্ছে না এবং তাঁরা খাদ্য সামগ্রী স্টক করছে। আর এই পরিস্থিতির মধ্যে কেন্দ্রের মোদী সরকার (Modi Sarkar) একটি বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এই বিষয়ে তথ্য দেওয়ার সময় খাদ্য এবং উপভোক্তা মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান (Ram Vilas Paswan) বলেন, এই নিয়মের লাভ দেশে ৭৫ কোটি মানুষ নিতে পারেন।

রামবিলাস পাসোয়ান অনুযায়ী, সস্তা রেশন যারা পায় তাঁরা একসাথে ছয়মাসের রেশন তুলতে পারবেন। এখন তাঁরা খুব বেশি হলে দুই মাসের রেশন একসাথে তুলতে পারবে। রামবিলাস পাসোয়ান সংবাদসংস্থা পিটিআইকে জানায়, ‘আমাদের গোদামে পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্য দ্রব্য আছে। আমরা সমস্ত রাজ্য সরকার আর কেন্দ্র শাসিত অঞ্চল গুলোকে জানিয়েছি যে, তাঁরা গরিব মানুষদের যেন একসাথে ছয় মাসের খাদ্য সামগ্রী তুলতে দেয়।”

পাসোয়ান বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণের মধ্যে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কারণ, আগামী দিনে কোন প্রকারের নিষেধাজ্ঞা জারি হলে যেন গরিব মানুষরা প্রভাবিত না হয়। আপনাদের জানিয়ে দিই, শুধুমাত্র পাঞ্জাব সরকার রাজ্যবাসীকে ছয় মাসের রেশন একবারে ওঠানোর অনুমতি দিয়েছে। পাসোয়ানের অনুযায়ী, এই সময় সরকারি গোদামে ৪.৩৫ কোটি টনের বেশি আনাজ আছে। যেটা সুরক্ষিত বাফার স্টকের বেশি।

এই ৪.৩৫ কোটি টন রেশনের মধ্যে ২৭২.১৯ লক্ষ টন চাল, ১৬২.৭৯ লক্ষ টন গম মজুদ আছে। সার্বজনীন প্রণালী অনুযায়ী, এপ্রিল মাসে বাফারে ১৩৫ লক্ষ টন চাল আর ৭৪.২ লক্ষ টন গমের ভাণ্ডার সুরক্ষিত মানা হয়।

সরকার এই সিদ্ধান্ত সেই সময় নিয়েছে, যখন করোনা ভাইরাসের কারণে মানুষ বাড়িতে খাদ্য সামগ্রী জড় করে রাখছে। যদিও, রামবিলাস পাসোয়ান বলেন, করোনা ভাইরাসের সঙ্কটের মদ্যে সরকারের কাছে পর্যাপ্ত পরিমাণে খাদ্য সামগ্রী মজুত আছে আর মানুষকে এই নিয়ে চিন্তা করার কোন দরকার নেই।