fbpx
নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনৈতিক

মিমি-নুসরতের পাল্টা রূপা-লকেট! বিজেপির প্রার্থী তালিকায় থাকছে একাধিক চমক।

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনকে ঘিরে এখন জোর তরজা দেশের রাজনৈতিক মহলে৷ বিশেষ করে পশ্চিমবঙ্গে শাসকদল ও বিরোধীদের মধ্যে জোর ঝামেলা এখন তুঙ্গে৷ লোকসভা নির্বাচনে শাসক দল ও গেরুয়া শিবিরের মধ্যে প্রার্থী নিয়েও প্রতিযোগিতা চলছে৷ টলিউডের দুই ব্যস্ততম অভিনেত্রী মিমি ও নুসরতকে প্রার্থী করার পর এবার বিজেপি শিবিরও তাঁদের দই তাঁবড় অভিনেত্রী তথা রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে প্রার্থী করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ তৃণমূল যেমন গত লোকসভা নির্বাচনের বেশ কিছু পরিচিত মুখকে বাদ দিয়ে এবার নতুন করে প্রার্থীদের ভোটের ময়দানে নামাতে চলেছে তেমনি বিজেপি শিবিরে আবার উল্টো পূরান৷ দেব, মুনমুন সেন, শতাব্দী রায় আগের মতোই এবারের নির্বাচনে লড়াই করছেন কিন্তু বাদ দেওয়া হয়েছে বেশ কিছু সাংসদকে৷ একদা বাংফ্রন্ট ও কংগ্রেসের লড়াই হলেও এবার লড়াই তৃণমূল বনাম বিজেপির৷ মাত্র পাঁচ বছরেই বিজেপি দেশে যেভাবে আধিপত্য বিস্তার করে ফেলেছে তাতে বেশ কিছুটা চিন্তিত মমতা সরকার৷ রাজ্যে 42 এ 42 টি আসনে প্রার্থী ঘোষনার পর তৃণমূলের প্রচার চলছে জোরকদমে৷

অন্যদিকে সোমবার দিল্লীতে বিজেপির অন্দরে কাদের প্রার্থী হিসেবে বাছল সেই নিয়েও এখন বিভিন্ন মহলে চর্চা চলছে৷ তবে খুব শীঘ্রই প্রার্থীদের নাম ঘোষনা করে চমক দিতে চলেছে বিজেপি৷ তবে বিজেপির সম্ভাব্য প্রার্থীর নাম কিন্তু ইতিমধ্যেই ঘোরাফেরা করছে রাজ্যের দলীয় মহলে৷ যাদবপুর কেন্দ্র, যেখানে এখন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীকে নিয়ে রীতিমতো তোলপাড় চলছে৷ আর সেখানেই নাকি মোক্ষম দাওয়াই দিতে চলেছে বিজেপি৷ তৃণমূলকে টক্কর দিতে চেয়ে বিজেপি সেই কেন্দ্রেই নামাতে চলেছে আরও এক তাঁবড় অভিনেত্রী রূপা গঙ্গোপাধ্যায়কে৷ আর যাদবপুরের মতো আরও এক চর্চিত কেন্দ্র বসিরহাট সেখানে দাঁড়াচ্ছেন টলি অভিনেত্রী নুসরত জাহান আর যার বিরুদ্ধে নাকি বিজেপির হয়ে দাঁড়াতে চলেছেন শমীক ভট্টাচার্য৷ তবে এখানেই শেষ নয় অনব্রত মন্ডলের বীরভূম কেন্দ্র নিয়েও নাকি বিজেপির বেশ একগুচ্ছ পরিকল্পনা রয়েছে৷ সবথেকে বেশি সংবাদের শিরোনামে থাকা অনুব্রত মন্ডলের বীরভূম লোকসভা কেন্দ্রে এবার প্রার্থী হচ্ছে শতাব্দী রায়৷ আর সেখানেই শতাব্দী রায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর জন্য নাকি বেছে নেওয়া হচ্ছে লকেট চট্টোপাধ্যায়কে৷

কিন্তু এখানেই ঘোর বিপদ লকেট চট্টোপাধ্যায় নাকি ওই লোকসভা কেন্দ্রে দাঁড়াতে চাইছেন না৷ আবার করিমপুর লোকসভা কেন্দ্রে তৃণমূলের প্রার্থী হতে চলেছেন মহুয়া মৈত্র আর সেখানেই বিজেপি প্রার্থী হিসেবে প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সত্যব্রত মুখোপাধ্যায় দাঁড়াতে পারেন বলে খবর৷ অন্যদিকে, ঠাকুরবাড়িতে আবার একই পরিবারের দুই সদস্যের মধ্যে লড়াই হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে৷ মতুয়া সংঘের অন্যতম সদস্য মমতাবালা ঠাকুরকে তৃণমূলের প্রার্থী করা হচ্ছে বনগাঁ লোকসভা কেন্দ্রে আর ঠিক সেখানেই ঠাকুরবাড়ি পরিবারের অন্যতম সদস্য শান্তনু ঠাকুরকেই নাকি তৃণমূলের বিরোধী প্রার্থী বিজেপি শিবির দাঁড় করাতে চাইছে৷ কিন্তু অন্য একটি সূত্র আবার এই খবরের সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে৷ শোনা যাচ্ছে সেখানে নাকি দাঁড়াতে পারেন বাগদার বিধায়ক দুলাল বরকে৷ যিনি সদ্য বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন৷ অন্যদিকে আবার আর এক চমক ঘাটালে৷ তৃণমূলের প্রার্থী হিসেবে আগের মতোই দেব লড়বেন আর সেখানেই তাঁর বিরুদ্ধে দাঁড়াতে পারেন একদা মমতা ঘনিষ্ঠ ভারতী ঘোষ৷
আবার, কোচবিহারে আগের বারের মতো পার্থ প্রতিম রায় টিকিট পাওয়ার আশা করলেও স্বয়ং দিদিই সেখানে টিকিট দিয়েছেন অন্যজনকে৷ ফলে তাঁর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা তুঙ্গে৷ আর সেখানে নাকি বিজেপি হয়ে লড়তে পারেন তৃণমূল থেকে ইস্তফা দেওয়া নীশিথ প্রামানিক৷

আর একটি কেন্দ্র জঙ্গলমহল৷ যেখানে বিজেপি গেরুয়া রং-এ ভরাতে চাইছে৷ জঙ্গলমহলের বাঁকুড়ে কেন্দ্রে তৃণমূলের তরফ থেকে সুব্রত বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী হতে চলেছেন৷ সেখানেই নাকি দাঁড়াতে পারেন বিজেপি নেতা সুভাষ সরকার৷ জঙ্গলমহলের অন্যতম কেন্দ্র পুরুলিয়াতে বিজেপির পক্ষ থেকে দাঁড়াতে পারেন নরহরি মাহাতো৷ তবে কোন কেন্দ্রে কে প্রার্থী হবেন তা শুধুমাত্রই প্রাথমিক সূত্রে খবর৷ বিজেপির পক্ষ থেকে প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পরই নিশ্চিত হওয়া যাবে কোন কেন্দ্রে কে নামবেন বিরোধীদের হয়ে৷

Open

Close