রাজ্যকে নিলামে তুলছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়! গুরতর অভিযোগ এই নেতার

বকেয়া নিয়ে কেন্দ্রেকে আক্রমণের প্রেক্ষিতে এবার রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রকে আক্রমণ করলেন বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতা রাহুল সিনহা। তিনি বলেন, যেদিন থেকে অর্থমন্ত্রী হয়েছেন, কেন্দ্রের বিরুদ্ধে কথা বললেই, গতে বাধা দু-তিনটি শব্দের বাইরে আর কোনও কথাই বলতে পারেন না।

নতুন ভাষায় কেন্দ্রকে আক্রমণ রাজ্য সরকারের অর্থমন্ত্রীর। মোদী সরকারকে প্রবঞ্চকের সঙ্গে তুলনা করেন তিনি। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তিনি সমালোচনায় সবর হন।ভার্চুয়াল সাংবাদিক বৈঠকে অমিত মিত্র বলেন, জিএসটির ক্ষতিপূরণ না মিটিয়ে রাজ্যকে ধার করতে বলছে কেন্দ্র। এর ফলে যুক্ত রাষ্ট্রীয় কাঠামো ভেঙে পড়বে বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি। জিএসটি নিয়ে কেন্দ্রের প্রস্তাবে রাজ্য সরকার নারাজ বলেন জানিয়েদেন তিনি। অমিত মিত্রের অভিযোগ বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকার যুক্ত রাষ্ট্রীয় কাঠামো ভেঙে দিয়ে কেন্দ্রীয়করণের পথে হাঁটতে চাইছে।

বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা পাল্টা আক্রমণ করতে গিয়ে কেন্দ্রীয় করণের চেষ্টা, যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর আঘাতের মতো শব্দ তুলে ধরেছেন। এই শব্দগুলোই অমিত মিত্র কেন্দ্রকে আক্রমণ করতে গিয়ে ব্যবহার করেছিলেন। রাহুল সিনহা বলেন, এর বাইরে আর কোন কথা বলতে শোনা যায়নি অমিত মিত্রকে।

রাহুল সিনহা আরও কটাক্ষ করে বলেন, অমিত মিত্র তো এই রাজ্যের অর্থমন্ত্রী নন, তিনি মমতা মন্ত্রী। রাহুল সিনহা বলেন, এই রাজ্যের কোনও অর্থনীতি নেই। মমতা নীতিতেই চলছে। যে কারণে রাজ্যের দুরবস্থা। রাজ্য বাইরে থেকে টাকা ধার করছে, রাজ্যকে নিলামে তুলছে।

রাহুল সিনহা আক্রমণের তেজ বাড়িয়ে বলেন, মমতার সরকারকে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক থেকে ধার নেওয়ার কথা বললেই, তেলে বেগুনে জ্বলে উঠছে। তাঁর অভিযোগ এই সরকার আর এই অর্থমন্ত্রী আমলে রাজ্যের অর্থনীতি ভেঙে চুরমার হয়ে গিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের অর্থনীতি নিলামে উঠেছে। যা চাপতে একই কথা আওড়ে যাচ্ছেন অমিত মিত্র, বলেছেন তিনি।