Lockdown এ দেশের প্রবীণ নাগরিকদের বাজার করার দায়িত্ব নেবে বিজেপির কর্মীরা

দেশের লকডাউন (Lockdown) অবস্থায় দেশের প্রবীণ নাগরিকদের পাশে এসে দাঁড়াচ্ছে গেরুয়া বাহিনী। অসহায় প্রবীণ মানুষ, যাদের বাড়িতে বাজার করে দেওয়ার মত কেউ নেই অথবা যারা দুঃস্থ মানুষ যাদের কাছে বাজার করার টাকা নেই, সেই সমস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিজেপির সদস্যরা।

শনিবার বিজেপির (BJP) সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা ও সাধারণ সম্পাদক বিএল সন্তোষ ভিডিও কনফারেন্স করেন বঙ্গ বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্ব সহ রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, সুব্রত চট্টোপাধ্যায়, সায়ন্তন বসু ও প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়দের সঙ্গে। তিনি নির্দেশ দেন এই গৃহবন্দি অবস্থায় অসহায় বৃদ্ধ মানুষদের পাশে দাঁড়াতে হবে। তাঁদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। এই সিদ্ধান্ত গ্রহণের পরেই বিজেপির তরফে বুথস্তরে কর্মীদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এলাকার সমস্ত প্রবীণ মানুষদের সাহায্য করবার জন্য।

যাদের বাড়িতে দোকান বাজার করার মত কেউ নেই, তাঁদের বাজার করে দিয়ে সাহায্য করেতে হবে। এই রোগে যেহেতু প্রবীণ মানুষরা বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন, তাই তাঁদের ঘর থেকে না বেরনোই ভালো। কিন্তু তাঁদের কোন জিনিসের প্রয়োজন হলে, তা পৌঁছে দেবে বিজেপির সদস্যরা। শুধু প্রয়োজনীয় জিনিস পৌঁছে দেওয়াই নয়, তাঁর পাশাপাশি যাদের বাজার করার সামর্থ নেই, নিজেদের পয়সা দিয়ে তাঁদের বাজার করেও দিতে হবে।

ভিন রাজ্যে আটকে পড়া বাঙালিদের উদ্ধারের কাজেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের গেরুয়া শিবির। বিভিন্ন জায়গায় আটকে পড়া রাজ্যবাসীদের উদ্ধার করতে তাঁরা কলকাতার পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে কথা বলেছেন। যেমন, সন্দেশখালির ১৩ জন শ্রমিক কাজের প্রয়োজনে বিশাখাপত্তনমে আটকে রয়েছেন এবং গুজরাতের রাজকোটে আটকে পড়েছেন ঝাড়গ্রামের বহু শ্রমিক, তাঁদের সলককে বাড়িতে ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য পুলিশের সাহায্য নিচ্ছেন রাজ্য বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু।