fbpx
দেশরাজনৈতিক

পাকিস্তানের উপর এয়ার স্ট্রাইক, দেশবাসীর মন জয় করে কর্ণাটকে সবকটি আসনে জয়লাভ করবে বিজেপি: প্রাপ্তন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুপ্পা।

পাকিস্থানে এয়ার স্ট্রাইক করে জঙ্গী নিধন ভারতীয় সেনাদের কাছে বিরাট পাওয়া৷ মঙ্গলবার ভারতের কাছে পুলওয়ামা জঙ্গী হানায় মৃত জওয়ানদের জন্য যোগ্য প্রতিশোধ হিসেবে ঘোষিত হয়েছে৷ আর ভারত সরকারের কাছে তো এই এয়ারস্ট্রাইক অন্যতম রাজনৈতিক হাতিয়ার হয়ে উঠেছে৷ সেখান থেকেই আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে জয়ের আশায় বুক বাঁধছে কর্ণাটক বিজেপি৷ তাই কর্ণাটকের বিজেপি সভাপতি ইয়েদুপ্পা সরাসরি আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে কর্ণাটকে সবকটি আসনে জয়লাভের কথা জানিয়ে দিলেন৷ ইয়েদুপ্পার আশা ভারতের এতবড় সাফল্য লোকসভা নির্বাচনে নিশ্চিত প্রভাব ফেলবে৷ পাকিস্থানকে সেভাবে উচিত শিক্ষা দিয়ে বড় চমক দিয়েছেন মোদী সরকার ভোটের আগে এর থেকে ভালো কিছু হয়না বলেও মত প্রকাশ করেছেন কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুপ্পা৷

তাই এই ঘটনা ভোটের লড়াইয়ে বিজেপিকে অন্যান্য দলের থেকে অনেকাংশে এগিয়ে দেবে তা নিয়েও আশার বানী শুনিয়েছেন৷ বুধবার এক সাংবাদিক বৈঠকে কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী পাকিস্থানের মাটিতে ভারতীয় সেনাদের অদম্য সাফল্যের কথা তুলে ধরেন৷ পাশাপাশি, ভারতীয় সেনাদের সাফল্য ভোটের গরম হাওয়া বিজেপির দিকে এগিয়ে যাচ্ছে তা বোঝা যাচ্ছে বলেও মত প্রকাশ করেন তিনি৷ এমনকি পাকিস্থানকে জবাব দেওয়ায় বিজেপি সরকারের প্রতি ভারতীয় যুব সম্প্রদায়ের সন্তুষ্ট হওয়ার কথাও বলেন তিনি৷ তাই কর্নাটকে ২২ টি আসনে জয়লাভ হবে বলেও জানান তিনি৷
ভালোবাসার দিনে কাশ্মীরের পুলওয়ামায় ভারতীয় সিআরপিএফ জওয়ান কনভয়ে হামলা চালায় পাকিস্তানের জইশ-ই-মহম্মদ জঙ্গী সংগঠন৷ তার বদলাতেই বারো দিন পরে দেশের বারোটি মিরাজ বিমান পাকিস্থানের বালাকোটে হাজার কেজি বোমা বিস্ফোরণ করে৷

প্রায় সাড়ে ছয় হাজার কোটি টাকা খরচ করে দেশের শহিদ সেনাদের মৃত্যুর বদলা নেয় ভারতীয় বায়ুসেনার দল৷ প্রায় চারশো জঙ্গী নিধন করে জইশ সংগঠনের বিরাট ক্ষতি করে দিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা৷ আর এই আক্রমনে কার্যত বিনা মেঘে বজ্রপাত পড়েছে পাকিস্থানের মাথায়৷ তাই মঙ্গলবার থেকে বুধবার রাত অবধি লাগাতার বোমা বিস্ফোরণ ঘটায় পাকিস্থান৷ তাতে যদিও বিন্দুমাত্র সাফল্য পায়নি তারা৷ কারণ বুধবারও দুই জইশ জঙ্গী সংগঠনকে শেষ করেছে ভারত৷ এমনকি বেশ কয়েকটি জেট ফাইটারকে গুঁড়িয়ে দিয়েছে ভারতীয় সেনারা৷
এমনতেই ভারতীয় সেনাদের এই ঐতিহাসিক জয়ে খুশি গোটা দেশবাসী৷ সেনাদের প্রভাব দেশের সরকারের ওপর থাকেই৷ তাই সেনাদের সাফল্য মানেই দেশের সরকারের সাফল্য৷

এরই ফল স্বরূপ, দুমাস পরে লোকসভা ভোটে ভোটবাক্সের ফল হয়তো মোদীর দিকে যেতে পারে এমন আশঙ্কা উড়িয়ে দিচ্ছেন না কেউই৷ আর সেই লক্ষ্যেই কর্ণাটিকের প্রাপ্তন মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে জয়ের আসা দেখছে।

Open

Close