দখলে থাকা শিব মন্দিরের জমি উদ্ধার করতে গিয়ে জেহাদি আক্রমণের শিকার বিজেপির কর্মীরা

দেবত্ব সম্পত্তি উদ্ধার করতে গিয়ে আক্রান্ত হলেন বিজেপি কর্মীরা। অভিযোগ শিব মন্দিরের ঐ জমি বেআইনি ভাবে দখল করে নিয়েছিল এলাকার লোকজন। গতকাল তারা উদ্ধার করতে গেলে সংঘর্ষ বাধে। বিজেপি কর্মীদের মারধর করা হয়। এমনকি গুলিও চালানো হয় বলে অভিযোগ। এই ঘটনা নদিয়ার তেহট্টর বিনোদনগর হাজরা পাড়ার।

জানা গেছে, তেহট্টর বিনোদনগর হাজরাপাড়ায় শিব মন্দিরের নামে ১৪ শতক জমি ছিল। অভিযোগ, সেই জমি সিপিএমের আমলে বেআইনিভাবে কারচুপি করে পাট্টা দেওয়া হয়। এতদিন চুপচাপ থাকার পর দুদিন আগে ওই জমি দখল নেয় গ্রামেরই আকরাম শেখ, রমজান শেখ, যাদব শেখ, ইমরান শেখ, নবীর উদ্দিন শেখ সহ আরো অনেকে। তারা ওই দেবোত্তর সম্পত্তি বাঁশ দিয়ে ঘিরে ফেলতে গেলে বিজেপি কর্মী বিকাশ হাজরা স্থানীয় কয়েকজন এলাকার মানুষকে নিয়ে সেখানে যায় এবং প্রতিবাদ করতে গেলে ইমরান শেখ নবিছুদ্দিন শেখ সহ আরো অনেকে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ করে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে আজহার শেখ ৫ রাউন্ড গুলি চালায়।

আশঙ্কাজনক অবস্থায় বিজেপি কর্মী বিকাশ হাজরাকে তেহট্ট মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার মাথায় দশটা সেলাই পরে। এই ঘটনায় এখনো পর্যন্ত রমজান শেখ এবং নবিছুদ্দীন শেখকে পুলিশ আটক করে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ৩৪১, ৩২৫, ৩২৬, ৩০৭, ৫০৬, ৩৪ ধারায় মামলা রুজু করা হয়। আজ এই মামলায় অভিযুক্ত দুজনকে তেহট্ট মহকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক ১৭ জুন পরবর্তী শুনানির দিন ধার্য করেন।

নদিয়া জেলা উত্তরের হিন্দু জাগরণ মঞ্চের সম্পাদক জগন্নাথ ঘোষ জানান, ওটা দেবোত্ব সম্পত্তি।
আরএস রেকর্ড অনুযায়ী জমিটা দেবত্ব সম্পত্তি। এলআর অনুযায়ীও দেবত্ব সম্পত্তি। ওখানকার কিছু মানুষজন অবৈধভাবে ওই জমি দখল করার চেষ্টা করছিল। তাতে বাধা দিতে গেলে এই সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়।

সিপিএমের তেহট্ট উত্তরের এরিয়া কমিটির সম্পাদক মানস মন্ডলকে অনেকবার ফোন করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।