বড় খবরঃ শুভেন্দুকে ছেঁটে ফেলার প্রক্রিয়া শুরু করল তৃণমূল, যোগ দেবেন বিজেপিতে?

 রাজ্যের মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari) ছেঁটে ফেলতে চলেছে তৃণমূল (All India Trinamool Congress)। ওনাকে একটি বড় সংগঠনের দায়িত্ব থেকে সরিয়েও ফেলা হয়েছে। মঙ্গলবার তৃণমূল ভবনে করা একটি বৈঠকে এই কঠোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জী এবং সুব্রত বক্সী। এই বৈঠকেই তৃণমূলের রাজ্য সরকারি কর্মচারী ফেডারেশন ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় এবং এই সংগঠন থেকে বাদ পড়েন শুভেন্দু অধিকারী।

বেশ কিছুদিন ধরে তৃণমূলের সমস্ত কর্মসূচী থেকে দূরে থাকছিলেন তিনি। এমনকি দল থেকে ওনাকে উপস্থিত থাকার নির্দেশ দেওয়ার পরেও ওনাকে দলীয় কর্মসূচীতে দেখা যায় নি। আর এরপর এই গুরুত্বপূর্ণ কমিটি ভেঙে ওনার পদ অপসারিত করার পর রাজ্যে আরও জল্পনা বাড়ল। তিনি বেশ কিছুদিন ধরেই এই সংগঠনের কাজে বিশেষ গুরুত্বও দিচ্ছিলেন না বলে সুত্রের খবর। আর সেই কারণেই দল এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, শুভেন্দু রায়ের বিজেপিতে যোগ দেওয়া এখন মাত্র সময়ের অপেক্ষা। আর এর পিছনে বড়সড় ভূমিকা পালন করছেন একদা তৃণমূলের নাম্বার টু মুকুল রায়। সম্প্রতি তৃণমূলের রাজ্য কমিটিতে যেই আমূল পরিবর্তন হয়েছে, সেটা নিয়ে একদমই খুশি ছিলেন না শুভেন্দু অধিকারী। সবার আশা ছিল এবার হয়ত ওনাকে রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব দেওয়া হবে। কিন্তু তৃণমূল ওনাকে দায়িত্ব দেবে না বলেই পদটাই তুলে নেয়।

এছাড়াও ছত্রধর মাহাতো আর ঋতব্রত ব্যানার্জীর মতো নেতা দলের গুরু দায়িত্ব পেলেও শুভেন্দু অধিকারী সেই তিমিরেই থাকেন। এরপর থেকেই অধিকারী অনুগামীদের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হতে থাকে। তখন থেকেই ওনার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার জল্পনা বাড়তে থাকে। হয়ত আর কিছুদিনের মধ্যে এই জল্পনার অবসানও ঘটবে।