নবম শ্রেণীর ছাত্রীকে বিয়ে করলেন ৪৮ বছর বয়সী চেয়ারম্যান, গোটা এলাকায় হুলুস্থুলি কাণ্ড

কুড়িগ্রামের উলিপুরে বাল্য বিয়ে মুক্ত ঘোষণা দেওয়া ইউনিয়ন বুড়াবুড়ি। অথচ এই ইউনিয়নেরই চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকারের বিরুদ্ধে নবম শ্রেণির অপ্রাপ্তবয়স্ক এক শিক্ষার্থীকে বিয়ে করার অভিযোগ উঠেছে।

বুড়াবুড়ি ইউনিয়নকে গত বছর আনুষ্ঠানিকভাবে বাল্য বিয়ে মুক্ত ঘোষণা দেয় জেলা ও উপজেলা প্রশাসন। গত রোববার রাতে ৪৮ বছর বয়সী ইউপি চেয়ারম্যান নিজেই বাল্য বিয়ে সেরেছেন। এলাকাবাসী জানান, চেয়ারম্যানের এটি তৃতীয় বিয়ে।

বকসীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মেহেরুজ্জামান জানান, ওই শিক্ষার্থী তার স্কুলে মানবিক বিভাগের নবম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত।

জানতে চাইলে ইউপি চেয়ারম্যান আবু তালেব সরকার বিয়ের কথা স্বীকার করে বলেন, ‘আমার নব পরিণীতা স্ত্রীর প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার সনদ অনুযায়ী বয়স ২০ বছর। স্কুলের বিভিন্ন শ্রেণিতে একাধিকবার অনুত্তীর্ণ হওয়ায় সে এখনো স্কুল শিক্ষার্থী।’

চেয়ারম্যানের দাবি, প্রতিপক্ষরা বিষয়টি নিয়ে তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।

উলিপুর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশরাফুল আলম রাসেল জানান, বিষয়টি তার জানা নেই। এ বিষয়ে কেউ লিখিত অভিযোগ করলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।