অক্সফোর্ডের করোনা টিকার চূড়ান্ত পর্বের ট্রায়াল শুরু ভারতে, আশার আলো দেখছে বিজ্ঞানীরা

শুরু হয়ে গিয়েছে ‘কাউন্টডাউন’! করোনার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর সময় হয়ে গিয়েছে। কারণ, ভারতে শুরু হতে চলেছে অক্সফোর্ডের করোনা টিকার (ডিএনএ ভেক্টর ভ্যাকসিন) অন্তিম পর্যায়ের হিউম্যান ট্রায়াল।

ইতিমধ্যেই বিশ্বের অন্যান্য দেশে অক্সফোর্ডের এই টিকার প্রথম ও দ্বিতীয় ট্রায়াল শেষ হয়েছে। ফল মিলেছে ইতিবাচক। কিন্তু নিয়ম মেনে কোনও বিদেশি সংস্থার টিকা ভারতের বাজারে ছাড়ার আগে দেশের জনগণের উপরে সেটির তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল করে দেখা প্রয়োজন। সে কারণেই সেরাম ইনস্টিটিউট ভারতে Covishield-এর শেষ পর্যায়ের ট্রায়াল শুরু করতে চলেছে।

Covishield-এর শেষ পর্যায়ের এই ট্রায়ালে দেশজুড়ে ১০টি কেন্দ্রে ১,৬০০ স্বেচ্ছাসেবকের উপরে এটি প্রয়োগ করা হবে। স্বাস্থ্য মন্ত্রক সূত্রে খবর, ১৮ থেকে ৫০ বছর বয়সী সুস্থ ও নিরোগ স্বেচ্ছাসেবকদের উপর মোট দু’দফায় এই টিকা প্রয়োগ করা হবে। প্রত্যেক ডোজের পর স্বেচ্ছাসেবকদের ১৪ দিন বিশেষ পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। জানা গিয়েছে, সব মিলিয়ে এই স্বেচ্ছাসেবকদের মোট দু’মাস বিশেষ পর্যবেক্ষণে রাখা হবে তার পর সেই পরীক্ষার ফলাফল বিশ্বের অন্যান্য দেশে হওয়া পরীক্ষার ফলের সঙ্গে খতিয়ে দেখে তবেই এই টিকা বাজারে ছাড়ার উপযুক্ত কিনা, সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

মুম্বাইয়ের কিং জর্জ মেমোরিয়াল হাসপাতাল এবং নায়ার হাসপাতালে শুরু হতে চলেছে Covishield-এর শেষ পর্যায়ের ট্রায়াল। টিকার ইতিবাচক ফলাফলের আশায় বুক বেঁধেছে গোটা দেশ। এই ট্রায়ালের ফলাফল আশাব্যঞ্জক হলে প্রতি মাসে অন্তত ১০ কোটি টিকা উৎপাদনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুনের সেরাম ইনস্টিটিউট। চুক্তি অনুযায়ী, মোট উৎপাদনের ৫০ শতাংশই পাবে ভারত।