মাই ইন্ডিয়া ডেস্কঃ বাংলা, বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গাপুজো। আর এই দুর্গাপুজোর শেষ লগ্নেই কিনা ভাসান নিয়ে অদ্ভূত এক ফতোয়া জারি করে বসলেন খড়গপুরের এক অবাঙালি কাউন্সিলর। খড়গপুরের ১২ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সরিতা ঝা পুরসভার পুকুরে দুর্গাপুজোর বিসর্জন করা যাবে না বলে ফতোয়া দিলেন।

সরিতা ঝা

স্থানীয় সূত্রে খবর, কাঞ্জিলালের পুকুর বলে পরিচিত ওই জলাশয়টি সম্প্রতি ২০ লক্ষ টাকা ব্যয় করে সংস্কার করেছে পুরসভা। অথচ ওই পুকুরটি তিনি নিজের টাকায় সংস্কার করেছেন। তাই সেখানে তিনি ভাসান করতে দেবেন না।

যদিও পুজো কমিটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, কেন ওই পুকুরে ভাসান দেওয়া যাবে না, এই প্রশ্নের জবাবে অবাঙালি ওই কাউন্সিলর জানিয়েছেন, ‘এখানে শুধু মাত্র ছটপুজো হবে। এখানে কোন দুর্গাঠাকুর বিসর্জন হবেনা।’ বিষয়টি নিয়ে ‘বাংলা পক্ষ’ নামে একটি সংগঠন সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশ করতেই সমালোচনা শুরু হয় নানা স্তরে। সকলেই কাউন্সিলরের এই মানসিকতার তীব্র বিরোধিতা করেছেন। উল্লেখ্য, ওই পুকুরে কিছুদিন আগেই যদিও গণেশ বিসর্জন হয়েছে। অনেকেই বাংলার একজন কাউন্সিলরের এই ধরণের বাঙালি সংস্কৃতির বিরোধিতার তীব্র নিন্দা করেছেন।