সকালে নিজেকে বাঁচাতে মাকে দিয়ে ভিডিও বানানোর পর, এবার বাবুলের কাছে ক্ষমা চাইল যাদবপুরের ছাত্র

মাই ইন্ডিয়া ডেস্কঃ সকাল বেলায় বাবুল সুপ্রিয় নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে একটি পোস্ট করেছিলেন, যেখানে বর্ধমানের যুবক যে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে বাবুল সুপ্রিয়’র চুল ধরে টেনেছিল এবং হেনস্থা করেছিল তাঁর মায়ের একটি ভিডিও দেখা যায়। সেই ভিডিওতে দাবাঞ্জন বল্লভের ক্যান্সার আক্রান্ত মা আসানসোলের সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়র কাছে কাঁতর আবেদন করে ছেলে দেবাঞ্জনকে ক্ষমা করার কথা বলছিলেন।

বাবুল সুপ্রিয় ওই ভিডিও পোস্ট করে বাবুল সুপ্রিয় লেখেন, ‘চিন্তা করবেন না মাসিমা – আমি কোনো ক্ষতি করবোনা আপনার ছেলের !! ওর ভুল থেকে ও শিক্ষ্য নিক এটাই চাই ! আমি নিজে কারো বিরুদ্ধে কোনো FIR তো করিইনি – কারোকে করতেও দিইনি – আপনি দুশ্চিন্তা করবেন না – তাড়াতাড়ি সেরে উঠুন মাসিমা ! আমার প্রণাম নেবেন 🙏।” 

বাবুল সুপ্রিয়র এই মানবিক পোস্ট মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়ে যায়। সবাই ওনার এই মানবিক কাজের প্রশংসা করেন। আর কয়েক ঘণ্টা যেতে না যেতেই অভিযুক্ত দেবাঞ্জনের একটি পোস্ট সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। দেবাঞ্জন ফেসবুকে একটি পোস্ট করে বাবুল সুপ্রিয়র সাথে করা কাজের জন্য ক্ষমা চেয়েছে। দেবাঞ্জন ফেসবুকে পোস্ট করে লিখেছে, ‘আমি নিজেকে অপরাধী মনে করছি, আমার এই বাজে ব্যাবহারের জন্য আমাকে ক্ষমা করুন।”

Related Articles