DRDO বিকশিত করল এক স্বদেশী লেজার অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম, শত্রুদেশের প্রতিটি ষড়যন্ত্র হবে ব্যর্থ

ভারতে (India) প্রতিরক্ষা গবেষণা এবং উন্নয়ন সংস্থা (Defence Research and Development Organisation) একটি অ্যান্টি ডিফেন্স ড্রোন সিস্টেম (Anti Drone Solution) তৈরি করল। এই অ্যান্টি ড্রোন সলিউশন লেজার দ্বারা পরিচালিত এনার্জি উইপনের মাধ্যমে গোয়েন্দা ড্রোন গুলোকে ধ্বংস করতে সক্ষম। এই সিস্টেম মাইক্রো ড্রোন্স গুলোকে তিন কিমি দূর থেকেই খুঁজে পাওয়া সম্ভব। আর এই অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম আড়াই কিমি দূর পর্যন্ত নিশানা লাগাতে সক্ষম।

এই অ্যান্টি ড্রোন সিস্টেম দিল্লীতে স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে নজরদারি চালানোর জন্য ব্যবহার করার হচ্ছে। এই সিস্টেমের ফলে ভারত সীমান্তবর্তী এলাকা গুলোয় শত্রু পক্ষের গোয়েন্দা ড্রোন গুলোর উপর নজর রাখতে পারবে আর সেগুলোকে ধ্বংস করতে পারবে।

ভারত আর চীনের মধ্যে চীনা সীমান্ত বিবাদের মধ্যে গত মাসে DRDO পূর্ব লাদাখে বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখায় নজরদারি চালানোর জন্য সেনাকে ‘ভারত ড্রোন” দেয়। এই ড্রোন সম্পূর্ণ স্বদেশী ড্রোন। বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখায় নজরদারির সাথে সাথে এই ড্রোন বেশি উচ্চতা সম্পন্ন এলাকা আর পাহাড়ি এলাকায় নজরদারি চালানোর জন্য ভারতীয় সেনার সাহায্য করবে। প্রতিরক্ষা সুত্র জানায়, চীনের সাথে চলা সীমান্ত বিবাদের মধ্যে লাদাখে এই ড্রোন খুবই দরকারি।

ভারত-চীন সীমান্তে মোতায়েন করার জন্য বিশেষ ভাবে তৈরি করা ভারত ড্রোনকে প্রতিরক্ষা এবং বিকাশ সংগঠন (DRDO) এর চণ্ডীগড়ের প্রয়োগশালায় তৈরি করা হয়েছে। প্রতিরক্ষা সুত্র জানায়, এই ড্রোন ভারত তথা বিশ্বের সবচেয়ে স্মার্ট এবং হালকা নজরদারি ড্রোন হিসাবে তালিকাভুক্ত হতে পারে। এটি সম্পূর্ণ স্বদেশী।