চিকিৎসার গাফিলতিতে প্রাণ হারালেন দাপুটে তৃণমূল নেতা! মুখ্যমন্ত্রীর কাছে জবাব চাইল পরিবার

দীর্ঘদিন ধরেই জ্বর শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন খড়গ্রামের তৃণমূল (All India Trinamool Congress) ব্লক সভাপতি মফিজউদ্দিন মণ্ডল (Mafizuddin Mandal)। বুধবার শারীরিক অবস্থার অবন্নতির কারণে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয় মুর্শিদাবাদ জেলা পরিষদের বন বিভাগের কর্মাধ্যক্ষ তথা খড়গ্রামের তৃণমূল ব্লক সভাপতি মফিজউদ্দিন মণ্ডলকে।

চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে তাঁকে সারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার কথা বললেও, বহরমপুরের করোনা হাসপাতালে নিয়ে যায় তাঁর পরিবার। সেখানে গিয়ে তৃণমূল নেতাকে আইসিইউতে ভর্তি করার অনুরোধ করলে, চিকিৎসকরা নারাজ হয়। যার ফলে পরিবারের লোকজন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বচসায় জড়ায়। পরিবারের অনুমান ছিল তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এমনকি শারীরিক অসুস্থতার কারণে একাধিকবার ভেলরেও গিয়েছিলেন।

ঘটনাস্থলে স্থানীয় প্রশাসন উপস্থিত হয়ে তৃণমূল নেতা মফিজউদ্দিনের পরিবারের ৪ জনকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায়। এই ঘটনার পর বৃহস্পতিবার ভোরে হাসপাতালেই প্রাণ হারান মফিজউদ্দিন মণ্ডল। ঘটনার জেরে ক্রুদ্ধ পরিবারের সদস্যরা। তৃণমূল নেতার মৃত্যুতে তাঁর স্ত্রী জানিয়েছেন, ‘আমরা হাসপাতালের বিরুদ্ধে এখনই কিছু বলব না। আমাদের যা অভিযোগ আছে, তা আমরা মু্খ্যমন্ত্রীকে জানাবো।’