বলছি মার্ক্সের দিব্বি গিলে, চ্যাট ডিলিট করে দেবো! কমরেড ঋদ্ধ’র আরেকটি কেচ্ছা ফাঁস

ইদানিং সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করে অনেকেই অনেক বড় জায়গায় চলে যাচ্ছেন। কেউ নেতা হচ্ছে, কেউ আবার অভিনেতাও হচ্ছেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল (Viral) হওয়ার নিদর্শনও ঢের আছে। বেশীরভাগই কুপ্রস্তাব দেওয়ার নিদর্শন। আর এবার সেই ফাঁদেই পড়েছেন ডিওয়াইএফআই (DYFI) এর এক যুব নেতা। দুই ছাত্রী ওই নেতার বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় গুরুতর অভিযোগ করেছেন। এরফলে সেই যুব নেতা বড় বিপাকে পড়েছেন।

গতকাল দুইজন তরুণী কমরেড ঋদ্ধ’র বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় গুরুতর অভিযোগ এনেছিল। আর তাঁর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই আবার DYFI নেতার আরও একটি কেচ্ছা সামনে এলো। এর আগে বাম সাংসদ ঋতব্রত ব্যানার্জী ঠিক এমন ভাবেই কেচ্ছায় জড়িয়ে পড়েছিলেন। ওনাকে এরজন্য দল বহিষ্কৃতও করেছিল। কমরেড ঋতব্রত’র পর ঋদ্ধ’র কেচ্ছাতে জেরবার বাম দল। এমনকি ঋদ্ধ বাবু কার্ল মার্ক্সের দিব্বিও (karl marx) খেয়েছেন সেখানে।

অভিযোগ, ওই নেতা ছাত্রীদের কুপ্রস্তাব দেন, কখনো চোখে দেখেই খিদে মেটানোর প্রস্তাব। আবার কখনো হট ছবি দেওয়ার প্রস্তাব। দুই কলেজ ছাত্রীর ফেসবুক পোস্ট ইতিমধ্যে খুব ভাইরাল হচ্ছে। আর এরফলে বাংলার যুব সমাজ সিপিএম এর ওই যুব নেতার খুব নিন্দাও করছে। জানিয়ে রাখি, এর আগেও যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে এরকম একটি কাণ্ডে বেশ কয়েকজন SFI নেতা, কর্মী পদত্যাগ করেছেন। সেই ঘটনার রেশ কেটে ওঠার পরপরই এরকম আরও একটি কেচ্ছা।

জানিয়ে দিই, উপরের ভাইরাল হওয়া সমস্ত পোস্ট এবং স্ক্রিনশট অভিযোগকারিণীর ফেসবুক ওয়াল থেকেই নেওয়া। সত্যতা যাচাই তাঁরাই নিজেদের ফেসবুক ওয়ালে করেছেন।