পাক সরকারের নির্দেশ মতো বাড়িতে বসে কাজ করতে গিয়ে নিজের বাড়িই ধামাকায় উড়িয়ে দিলো এক জঙ্গি

0
123

করোনার আতঙ্ক ছড়িয়েছে গোটা বিশ্বে। চীন থেকে শুরু এই মহামারি এখন বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশেই থাবা বসাতে চলেছে। চীনের পর ইতালি আর ইরানে সবথেকে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন এই ভাইরাসে।

আরেকদিকে ভারতেও ধীরে ধীরে থাবা বসাতে চলেছে এই ভাইরাস। এখনো পর্যন্ত গোটা ভারতে ২০০ এর বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। আর তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

গোটা ভারতে করোনাভাইরাসের কারণে এমার্জেন্সি ঘোষণা করা হয়েছে। স্কুল, কলেজ, সিনেমা হল সব কিছুই আগামী ১৫ দিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এমনকি কয়েকটি রাজ্যের সরকার থেকে সরকারি কর্মীদের বাড়িতে বসে কাজ করার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে।

এরপর পাকিস্তানেও মহামারি রুপে দেখা দিয়েছে করোনাভাইরাস এখনো পর্যন্ত পাকিস্তানে ২০০ এর বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এই ভাইরাসে। এছাড়াও মৃত্যুও হয়েছে অনেকের। কিন্তু এখনো পর্যন্ত মৃত্যুর সঠিক খবর আমাদের কাছে আসেনি।

আরেকদিকে করোনাভাইরাসের কারণে পাকিস্তান সরকারও সবাইকে ঘরে বসে কাজ করার নির্দেশ দিয়েছে। সরকারের এই নির্দেশের পর পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠন জইশ এ মোহম্মদ এর এক জঙ্গি নিজের ধরে বসে মানববোমা পরীক্ষা করছিল। আর সেই সময় আচমকাই বোমা ফেটে যায়। বোমা ফাটায় ওই জঙ্গির মৃত্যু হয় আর তাঁর ঘরবাড়ি ধ্বংস হয়ে যায়। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন অনুযায়ী, করাচির একটি গ্রামের বাসিন্দা নজিবুল আহমেদ সরকারের নির্দেশ মতো ঘরে বসে কাজ করার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটিয়ে ফেলে।