দেশনতুন খবর

আবারও মুখোমুখি হলো ভারতীয়-চীন সেনা! চীন সীমান্তে বাড়ানো হলো সৈন্য সংখ্যা। 

ভারত এবং চীনা সেনাবাহিনী আবারো লাদাখে মুখোমুখি হয়েছে। প্রকৃতপক্ষে, বুধবার প্যানগং হ্রদের উত্তরে উপকূলে দুই সেনা কর্মীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছিল। তবে, উভয় পক্ষের মধ্যে প্রতিনিধি-পর্যায়ের আলোচনা হয়। নিউজ এজেন্সি ANI জানায়, বুধবার ভারতীয় সেনাবাহিনীর সদস্যরা প্যাংগং হ্রদের উত্তরে উপকূলে টহল দিচ্ছিলেন। এসময় তারা চীনের গণ মুক্তি বাহিনীর সেনাদের মুখোমুখি হন। চীনা সেনাবাহিনী ভারতীয় সেনাদের উপস্থিতির বিরোধিতা করেছিল। এ সময় উভয় সেনাবাহিনীর সৈন্যদের মধ্যে দ্বন্দ্ব হয়। যার পরে সীমান্তে সৈন্য সংখ্যা বাড়ানো হয়। যদিও এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে বলে দাবি করা হয়েছে।

জানিয়ে দি, ভারতীয় সেনাবাহিনী অক্টোবরে চীন সীমান্তে একটি বড় যুদ্ধভ্যাস করতে চলেছে। অক্টোবরে অরুণাচল প্রদেশে বিমান বাহিনীর সাথে ভারতীয় সেনাবাহিনীর মাউন্টেন স্ট্রাইক কর্পস-এর ৫ হাজারেরও বেশি কর্মী যুদ্ধভ্যাস  করবেন। চীন সীমান্তে এটিই প্রথম যুদ্ধেভ্যাস হবে। সেনাবাহিনীর একটি সূত্র সংবাদ সংস্থা এএনআইকে জানিয়েছে, তেজপুরে চারটি কর্পস তাদের বাহিনীকে রক্ষা করার জন্য উচ্চ অলিটিউটেডে মোতায়েন করা হবে এবং বিমান বাহিনী ১৭ মাউন্টেন স্ট্রাইক কর্পস থেকে ২৫০০ জনকে বিমানে বহন করে আনা হকবে। যুদ্ধভ্যাসে স্ট্রাইক কর্পস কর্মীরা কৌশলে 4 কর্পস সদস্যের উপর বিমান হামলা চালাবে।

এই বছরের জুলাইয়ে, ভুটান দাবি করেছিল যে 2017 সালে, ডোকলামে একটি রাস্তা নির্মাণের বিষয়ে চীন এবং ভারতের সেনারা একে অপরের মুখোমুখি হয়েছিল। এ সময় দুই সেনাবাহিনীর মধ্যে প্রচুর উত্তেজনা ছিল। দীর্ঘকালীন ডোকলাম স্ট্যান্ডঅফ দুই দেশের সীমান্ত বিরোধকে আরও বাড়িয়ে তুলেছিল। তবে দুই দেশের সম্পর্ক এখন সমাধান করা হয়েছে।

Close