দীর্ঘদিন ধরে ঘাসফুলের সাথে থাকার পর অবশেষে তৃণমূলের ভাণ্ডামির বিরুদ্ধে সরব হয়ে তৃণমূল ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদান করেছেন অর্জুন সিং। বিজেপিতে যোগদানের পরই ওনাকে ব্যারাকপুর থেকে নির্বাচনের টিকিট দেওয়া হয়েছে বিজেপির তরফে অর্থাৎ এবার ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে উনি বিজেপির হয়ে লড়াই করবেন।

আর লোকসভার টিকিট পাওয়ার পরই রাজ্যের অন্যান্য নেতাদের মতন উনিও জোরকদমে শুরু করে দিয়েছেন প্রচারকাজ। এইদিন অর্জুন সিং প্রচারে বেরিয়ে গিয়েছিলেন গুরুলিয়া। আর সেখানে গিয়ে প্রচারকাজ চালানোর সময় উনি সেখানকার ভোটারদের কাছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আদর্শ তুলে ধরেন এবং তাদের হাতে তুলে দেন পদ্মফুল।

এইদিন অর্জুন সিং এর কাছ থেকে পদ্মফুল পেয়ে সেখানকার ভোটাররা অত্যন্ত খুশি হন। এবং সেই সাথে তারা জানান যে, তৃণমূলের ঘাসফুল আমাদের কোনো কাজেই লাগে না ঘাসফুল হল ঘরবাড়ি নোংরা করা একটা ফুল। অপরদিকে তারা পদ্মফুলের ভূয়সী প্রশংসা করেন। উনারা জানিয়েছেন যে, পদ্মফুল হল দেশের জাতীয় ফুল, এছাড়াও বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসব দুর্গা পুজোতে পদ্মফুল কাজে লাগে। পদ্মফুল বাড়িতে লক্ষ্মী আনে। এইদিন ব্যারাকপুরের লোকসভার বিজেপি প্রার্থী অর্জুন সিং এলাকার অসংগঠিত শ্রমিকদের আশ্বাস দেন যে, ভোটে জিতলে ১৮,০০০ টাকা করে দেওয়া হবে তাদের নূন্যতম মজুরি।

এই ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চলের হর্তাকর্তা হলেন অর্জুন সিং। উনি এখানে চার বারের বিধায়ক। এইদিন উনি লোকসভায় জেতার ব্যাপারে বেশ আশাবাদী। উনি জানিয়েছেন যে, এই অঞ্চলের মানুষ ভোট দেন অর্জুন সিং নাম করে। অপরদিকে তৃণমূল প্রার্থী দীনেশ ত্রিবেদী কে এখানকার মানুষ চেনেন না বলেও উনি জানিয়েছেন।
#অগ্নিপুত্র