চীনকে শিক্ষা দিতে জোট বাঁধল ভারত-ইজরায়েল-আমেরিকা! ঘোর বিপাকে জিনপিং

শুধু অ্যাপ ব্যান নয়, প্রযুক্তির বাজারে চীনকে (china) আরো বড় ধাক্কা দিতে চলেছে ভারত (india)। আমেরিকা (America) ও ইজরায়েলের (Israel) মত শক্তিশালী দেশের সাথে জোট বেঁধে টেক জগতে চীনের একাধিপত্য নিশ্চিহ্ন করতে চলেছে ভারত। যে ৫জি (5g) নিয়ে চীন এই মুহুর্তে সারা বিশ্বে বাণিজ্য করছে, তাকে পুরোপুরি ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিতে চাইছে ভারত, আমেরিকা ও ইজরায়েল।

আমেরিকার আধিকারিক সূত্রে জানা যাচ্ছে যে, ভারত, আমেরিকা ও ইজরায়েল এক যোগে ৫জি নেটওয়ার্ক তৈরি ও গবেষনা করবে। তিন দেশের ৩ শহরে গড়ে তোলা হবে ৫জি হাব। ভারতে এই হাবটি গড়ে উঠিবে বেঙ্গালুরু শহরে। অন্যদিকে ইজরায়েলে তেল আভিভ ও আমেরিকার বিখ্যাত সিলিকন ভ্যালিতে হবে। সুতরাং একথা জলের মতো পরিস্কার যে ৫ জি-র টেক বাজারে চীনের রমরমাকে একদম নিশ্চিহ্ন করতেই এই পরিকল্পনা করেছে তিন দেশ।

এর আগে, চীনের বিনিয়োগকারীর হাত ধরে দেশের সুরক্ষা প্রশ্নের মুখে পড়তে পারে এই কারন দেখিয়ে চীনের দুই বিনিয়োগকারী সংস্থা হুয়ায়েই ও জেটিই কে তালিকা থেকে বাদ দিয়েছিল মার্কিন মুলুক।আমেরিকার তরফ থেকে জানানো হয়েছিল, এই দুই কোম্পানির সঙ্গে চিনের মিলিটারি ও গোয়েন্দা সংস্থার যোগ রয়েছে। এই দুই সংস্থাই ইউনিভার্সাল সার্ভিস ফান্ডের অধীনে প্রজেক্টে বিনিয়োগ করেছিল।

আমেরিকার যোগাযোগ ও প্রযুক্তির দিকে নজর রাখা ফেডারাল কমিউনিকেশনস কমিশন জানিয়েছে, এই দুই কোম্পানির মাধ্যমে মার্কিন নেটওয়ার্কে সুরক্ষার ক্ষেত্রে প্রশ্ন দেখা দিতে পারত তাই এই দুই কোম্পানিকে তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছিল, এই সিদ্ধান্তের ফলে এফসিসির-র তহবিলের প্রায় ৬২,৬৭৬ কোটি টাকা কোনও ভাবেই জেটিই ও হুয়াওয়ের কাছ থেকে কোনো পরিষেবা ক্রয়, উন্নত বা অন্য কোনো সুবিধা নেওয়া যাবে না।

পাশাপাশি আরো জানিয়েছে, অনেক তথ্য ও প্রমাণ সংগ্রহের পরেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা। আমেরিকার ৫ জি পরিষেবাকে ক্ষতির মুখে ফেলতে পারে চীনের এই দুই সংস্থা। পাশাপাশি, আরো অভিযোগ চিনের কমিউনিস্ট পার্টি ও চিনের মিলিটারির সঙ্গে গভীর সম্পর্ক রয়েছে এই দুই সংস্থার।