fbpx
নতুন খবরভারতীয় সেনা

যুদ্ধের প্রস্তুতি শুরু করে দিল ভারতীয় সেনাবাহিনী, শ্রীনগরে নামল অতিরিক্ত ১০০ কোম্পানি আধাসেনা। ভয়ে কেঁপে উঠল বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতারা।

পুলওয়ামা জঙ্গি হামলার পর ভারত সরকার পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়েছেন দেশের সেনাবাহিনীকে। আর তারপর থেকেই সেনাবাহিনী কাশ্মীরে করে চলেছে তল্লাশি। জেকেএলএফ নেতা ইয়াসিন মালিক কে আটক করা হয়েছে শত্রুবার রাতে। এরপর তল্লাশিকে আরও জোরদার করার জন্য জরুরি ভিত্তিতে অতিরিক্ত ১০০ কোম্পানির আধাসেনা পাঠানো হল শ্রীনগরে।

জঙ্গি হামলার পর মোদী সরকার গত কয়েকদিনে জম্মু কাশ্মীরে বসবাসকারী ১৮ জন বিচ্ছিন্নবাদী নেতার নিরাপত্তা তুলে নিয়েছে। সেই সাথে অনেক কর্মীদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে যারা রাজ্যের ১৫৫ জন বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতার নিরাপত্তায় ছিল। এছাড়াও এবার শুরু হয়েছে রাজ্যের সমস্ত বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের ধরপাকড়।

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার পর এই মুহূর্তে সেখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা একদম টাইট করে ফেলা হয়। নিরাপত্তায় সেনাবাহিনীর সাথে রয়েছে কাশ্মীর পুলিশ। আর এবার তাদের সাথে যুক্ত হল ১০০ কোম্পানি আধাসেনা। এরফলে এই মুহূর্তে সেখানকার নিরাপত্তা ব্যবস্থা এতটাই মজবুত যে একটা মাছিও গলতে পারবে না।

শুক্রবার রাতে ইয়াসিন মালিক ছাড়াও আরও অনেক জামাত-ই-ইসলামি নেতাকে ধরা হয়েছে। আব্দুল হামিদ ফায়াজ যিনি সংগঠনের প্রধান তাকেও ধরা হয়েছে এইদিন। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা বিশেষ করে অনন্তনাগ এবং ত্রাল থেকে এদের গ্রেফতার করা হয়েছে।
#অগ্নিপুত্র

Open

Close