fbpx
নতুন খবরভারতীয় সেনা

বড় খবর! কাশ্মীর থেকে জঙ্গি নির্মূল করার জন্য সেনাবাহিনী চালাচ্ছে “অপারেশন-৬০”। ভয়ে কাঁপছে পাকিস্তান।

গোয়েন্দারা গোপন সূত্রে খবর পেয়েছে যে জম্মু কাশ্মীরের নৌসেরা সেক্টরের বন্দিপোড়ায় বেশ কয়েকজন পাকিস্তানী জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে আর তারা সেখান থেকে সমস্ত জঙ্গি কার্যকলাপ চালাচ্ছে। আর এই খবর পাওয়ার পরই জঙ্গি দমন অভিযানে নেমে পড়েছে সেনা জাওয়ানরা। সেনারা পুরো এলাকাটিকে একেবারে ঘিরে ফেলে তল্লাশি চালাচ্ছে।

গতকাল এমনই একটি জঙ্গি লুকিয়ে থাকার খবর পায় সেনা জাওয়ানরা, তারপর সেনাবাহিনী কাশ্মীরের কুলগাঁও অর্থাৎ যেখানে জঙ্গি লুকিয়ে ছিল সেখানে অভিযান চালায়। সেখানে লুকিয়ে থাকা জাইশ-ই-মহম্মদ এর তিন কুখ্যাত জঙ্গি সেনার অভিযানের সময় সেনাবাহিনীর গুলিতে খতম হয়েছে। কিন্তু দুঃখের খবর এটাই যে, এই অভিযান চালানোর সময় এসএসবি এর ডিএসপি অমন ঠাকুর যিনি আন্টি টেরোরিস্ট অভিযান চালাতেন তিনি জঙ্গিদের গুলিতে শহীদ হয়েছেন।

পুলওয়ামায় ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর থেকে উপত্যাকার নিরাপত্তা আগের তুলনায় অনেক গুণ বৃদ্ধি করা হয়েছে। এই মুহূর্তে ভারতীয় জাওয়ানরা অনেক বেশি সক্রিয় এবং সাবধান হয়ে গিয়েছে এবং তার সাথে সাথে এখন সেনার টহলদারি পরিমাণ খুব ঘন ঘন অর্থাৎ বেড়ে গিয়েছে। আর তার ফলেই হামলা হওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই এই হামলার মাস্টারমাইন্ড জাইশ-ই-মহম্মদের কুখ্যাত জঙ্গি রাশিদ গাজিকে হত্যা করা গিয়েছে এবং তার সাথে সাথে কামরান কেও নিকেশ করতে সক্ষম হয়েছে ভারতীয় সেনার জওয়ানরা।

এই কুখ্যাত জঙ্গিদের খতম করার জন্য সেনার তরফে “অপারেশন -২৫” চালানো হয়, সেই অপারেশন ছিল অত্যন্ত ভয়ংকর। তবে এবার তার থেকেও আরো অনেক বেশি ভয়ঙ্কর অর্থাৎ “অপারেশন-৬০” চালাচ্ছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। সেনার তরফে জানানো হয়েছে কাশ্মীরে অনেক জঙ্গিকে খতম করা গেলেও এখনও রয়ে গিয়েছে ৬০ জনের বেশি জঙ্গি যার মধ্যে ৩৫ জন পাকিস্তানী এবং বাকিরা সেখানকার স্থানীয় জঙ্গি।
এছাড়াও কাশ্মীরকে এই মুহূর্তে নিরাপত্তা বলয়ে পুরোপুরিভাবে মুড়ে ফেলা হয়েছে কারণ এখন কাশ্মীরে চলছে অনুচ্ছেদ-৩৫ এর শুনানি। এছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে আলাদা করে ১০০ কোম্পানির আধা সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে কাশ্মীরে এবং আরও অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে কাশ্মীরের নিরাপত্তার জন্য।
#অগ্নিপুত্র

Open

Close