বেরিয়ে এল চাঞ্চল্যকর তথ্য। দেশের একমাত্র মহিলা প্রধানমন্ত্রী ছিলেন ইন্দিরা গান্ধী। এই ইন্দিরা গান্ধী ছিলেন কংগ্রেস কর্মী। উনি কংগ্রেস দল থেকেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। এবার ইন্দিরা গান্ধী কে নিয়েই বেরিয়ে এল এক চাঞ্চল্যকর তথ্য। বিশেষ সূত্রে জানা গিয়েছে এই ইন্দিরা গান্ধী তার বাবার সহকারী এম.ও. মাথাইয়ের সাথে যৌন কর্মে লিপ্ত ছিলেন ১২ বছর। এছাড়াও জানা গিয়েছে ইন্দিরা গান্ধী আরও একাধিক পুরুষের সাথে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন। এই সকল তথ্য পাওয়া গিয়েছে মাথাইয়ের আত্মজীবনী মূলক বই থেকে। সেই বই থেকে জানতে পারা গিয়েছে যে, নিজের স্বামী ফিরোজ গান্ধী কে একবারেই পছন্দ করতেন না ইন্দিরা গান্ধী। আর সেই জন্যই একাধিক পুরুষের সাথে উনার এই যৌন সম্পর্ক।

মাথাইয়ের বই থেকে জানা গিয়েছে যে, ইন্দিরা গান্ধী মাথাই কে প্রত্যেক দিন যৌন সম্পর্ক করার জন্য জোর করত। একদিন ইন্দিরা গান্ধী এবং মাথাই দুজন মিলে বাইরে চলে যায়। তারপর তারা দুজনেই যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হয়। এই সম্পর্ক অনেক দিন ধরে চলতে থাকে এর ফলে ইন্দিরা গান্ধী এক সময় গর্ভবতী হয়ে পড়েন এবং তিনি গর্ভপাত করান।

কিন্তু হটাৎ করেই একদিন তাদের এই সম্পর্ক ভেঙ্গে যায়। কিন্তু কেন? এই বর্ণনাও পাওয়া গিয়েছে মাথাইয়ের লেখা বই থেকে।
মাথাই জানিয়েছেন যে, ইন্দিরা গান্ধীর ইয়োগা প্রশিক্ষক ধীরেন্দ্র বাবুর সাথে সম্পর্কের কথা জানতে পেরে গিয়েছিল মাথাই। আর সেই জন্যই উনি এই সম্পর্কের ইতি টানেন। এর থেকে এটাই বোঝা যায় যে ইন্দিরা গান্ধী নিজের স্বামী কে অবহেলা করে অনেক পুরুষের সাথে যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হয়েছিলেন।
#অগ্নিপুত্র