fbpx
আন্তর্জাতিকনতুন খবরভারতীয় সেনা

ভারতীয় এয়ারফোর্সকে বিশ্বের সবথেকে শ্রেষ্ঠ হেলমেট দিতে চলেছে ইজরায়েল। যা শুনে ঘুম উড়লো চীন, পাকিস্তানের।

ভারতের সঙ্গে হাত মিলিয়ে ইজরায়েল এখন পাকিস্তানের ওপর হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ইতিমধ্যেই বালাকোট হামলায় ইজরায়েলি বোমা যে চমক দেখিয়েছে তাতে বোঝাই যাচ্ছে ইজরায়েলের সামরিক শক্ত কতটা উন্নত। ভারতের পাশে যে তিনটি শক্তিধর দেশ আছে তাঁদের মধ্যে ইজরায়েল অন্যতম। যেকোনো যুদ্ধের সময় সামরিক শক্তি দিয়ে ভারতকে সাহায্য করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ইজরায়েল। আর সেই মতো ভারত-ইজরায়েল সম্পর্কের ভীত প্রশস্থ হয়েছে। বিশেষ করে মোদী সরকার ক্ষমতায় আসার পর ইজরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক দৃঢ় করার সিদ্ধান্ত নেন। সেই ভাবেই এই দুই দেশের সম্পর্ক উন্নত হতে শুরু করেছে। আসলে ইজরায়েলের সামরিক শক্তিকে হাতিয়ার করে বিশ্বে স্থান প্রতিষ্ঠিত করা ও শক্তিধর দেশ হিসেবে ইজরায়েলের সঙ্গে আরও ভালো সম্পর্ক তৈরি করাই প্রধান উদ্দেশ্য বলে মনে করা হয়। ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো হওয়ার দরুন ইজরায়েল তাঁর সমস্ত আধুনিক প্রযুক্তি ও তথ্য ভারতের সঙ্গে শোয়ার করছে।

বালাকোট হামলাতেই সেটা স্পষ্ট্য। যদিও ইজরায়েল তাঁর গোপন তথ্য বা প্রযুক্তি সম্পর্কে কাউকেই সেভাবে কিছু বলে না, বিশেষ করে পাকিস্তানের মতো শত্রু দেশের সঙ্গে তো কিছুই শেয়ার করে না। তবে এবার ইজরায়েল ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও উন্নত হতে চলেছে। ভারতের সঙ্গে টেকনিক শেয়ার করার জন্য এবার ইজরায়েল ও ভারত চুক্তিবদ্ধ হতে চলেছে। বালাকোট জঙ্গী নিধনে ভারতীয় বায়ুসেনাদের সাফল্যে গর্বিত হয়েছে ইজরায়েল। তাইতো এবার ভারতীয় বায়ুসেনাদের জন্য তৈরি হতে চলা বিশেষ হেলমেট তৈরিতে সাহায্য করবে ইজরায়েল। জেট ফাইটার পাইলটের সবথেকে প্রয়োজনীয় বস্তু হেলমেট প্রশিক্ষণের জন্য তৈরি ইজরায়েল। ভারতীয় বায়ুসেনাদের দৃষ্টি প্রখর করতে ওই বিশেষ হেলমেটটিতে ডিসপ্লে পয়েন্টিং সিস্টেম ও হেলমেট পয়েন্টিং সিস্টেম তৈরি করা হবে। যা ভারতীয় বায়ুসেনাদের জন্য বিশেষ ভাবে উপকারী হবে বলে জানা গিয়েছে।

শত্রু দেশগুলির সঙ্গে লড়াই করতে ভারতীয় বায়ুসেনারা আরও বেশি করে ক্ষমতা পাবেন। এতদিন অবধি ভারতের পুরানো জেট ফাইটার ও সামরিক অস্ত্র নিয়ে যুদ্ধ করতে হতো ভারতকে। কিন্তু বালাকোট হামলায় মিগ-21 এর সাফল্য যেভাবে পাকিস্তানির শক্তিশালী জেট ফাইটারকে গুঁড়িয়ে দিয়েছে তাতে টনক নড়েছে ভারত সরকারের। তাই তো বিদেশ থেকে দামি বিমান আনার পাশাপাশি অস্ত্র ভান্ডার উন্নত করতে প্রস্তুতি নিয়েছে। রাশিয়ার সাহায্য নিয়ে দেশের মাটিতে তৈরি হচ্ছে অ্যাসল্ট পাওয়ার রাইফেল, বাড়ছে সুপারসনিক রাইফেলের রেঞ্জ। একই সঙ্গে আনা হচ্ছে একে-230 ও বেশি সংখ্যায়। আবার তৈরি হতে চলেছে উন্নত মানের হেলমেট। এতে ভারতের সামরিক শক্তি আরও বৃদ্ধি পেতে চলেছে তা বলাই যায়। এতদিন অবধি ভারতের পুরানো সামরিক অস্ত্র নিয়ে লড়াই করা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। মান্ধাতা আমলের সামরিক শক্তি নিয়ে ভারত যেভাবে সফল হয়েছে তার পরে ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তে বিশ্বের উন্যান্য শক্তিধর দেশ ভারতকে সমর্থন করেছে ও পাশে দাঁড়িয়েছে।

সেই জন্য এখনই ইজরায়েল সামরিক দিক থেকে ভারতকে সাহায্য করতে চলেছে। আর এই খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই পাকিস্তান চীন সহ ভারতের অন্যান্য শত্রু দেশগুলি রাতের ঘুম উড়ে গিয়েছে। কারণ তারা এমনিতেই ভারতের সাথে পেরে উঠছে না তারপর ভারত ধীরে ধীরে এত উন্নতির পথে যাচ্ছে এতে তাদের রাতের ঘুম উড়ে যাওয়াই স্বাভাবিক।

Open

Close