নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে এবার সুপ্রিম কোর্টে মামলা দায়ের করল কেরালা সরকার। দেশের প্রথম রাজ্য হিসেবে নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হল কেরালা। এই আইনের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যেই ৬০টিরও বেশি পিটিশন জমা পড়েছে সুপ্রিম কোর্টে।

কেরালার বাম নেতৃত্বাধীন সরকার শীর্ষ আদালতে করা তাদের আবেদনে জানিয়েছে যে নাগরিকত্ব আইন সংবিধানের একাধিক ধারাকে লঙঘন করে। যার মধ্যে রয়েছে সংবিধান বর্ণিত প্রত্যেক মানুষের সমান অধিকারের স্বীকৃতি। এছাড়া দেশের ধর্মনিরপেক্ষ পরিচয়কেও এই আইন লঙ্ঘন করে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি ২০১৫-র পাসপোর্ট আইনে আনা বদল এবং ফরেনার্স অ্যামেন্ডমেন্ট অর্ডারের বৈধতাকেও চ্যালেঞ্জ করেছে কেরালার পিনারাই বিয়জন সরকার।

নাগরিকত্ব আইনে পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান থেকে ধর্মীয় কারণে অত্যাচারের শিকার হয়ে পালিয়ে আসা অ-মুসলিম মানুষদের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। ধর্মীয় পরিচয়কে নাগরিকত্ব প্রদানের মাপকাঠি হিসেবে ধরায় সরব হয়েছে প্রায় গোটা দেশ।