দেশনতুন খবর

মোদী অশুভ ব্যাক্তি, ISRO এর চন্দ্রযান-২ মোদীর কারণেই অসফল হয়েছে: কুমারস্বামী, কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী।

কর্ণাটকের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী এইচডি কুমারস্বামী একটি বিবৃতি দিয়ে বড়ো বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন। তিনি বলেন যে ইসরোর সদর দফতরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উপস্থিতি “অশুভ” হতে পারে যার কারণে চন্দ্রায়ণ -২ ল্যান্ডার বিক্রমের সফট অবতরণ’ ব্যর্থ হয়েছিল। কুমারস্বামী মহীশুরের এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন, “আমি জানি না, তবে সম্ভবত মোদী ISRO তে পা রাখতেই কু-দৃষ্টি লেগে গেছিল চন্দ্রযান-২ এর উপর।” কুমারস্বামী বলেন,  মোদী সেপ্টেম্বরে বেঙ্গালুরুতে দেশের জনগণকে এই বার্তা দেওয়ার জন্য এসেছিলেন যে তিনি চন্দ্রায়ণ প্রবর্তনের পিছনে রয়েছেন। কিন্তু এই প্রকল্পটি ইউপিএ সরকার এবং ২০০৮- ২০০৯ এর সরকার ও বিজ্ঞানীদের ফলাফল ছিল। কুমারস্বামী বলেন, বেচারা বিজ্ঞানীরা 10-12 বছর ধরে কঠোর পরিশ্রম করেছেন।

কুমারস্বামী বলেন, মোদী এখানে নিজের প্রচার পেতে এসেছিলেন। মোদী দেখাতে চেয়েছিল যে চন্দ্রযান-২ উনার জন্যেই হচ্ছে। প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, চন্দ্রযান-২ চাঁদে সফট ল্যান্ডিং করার সময় ISRO এর সাথে যোগাযোগ হারিয়ে ফেলে। বিজ্ঞানীরা এখনও যোগাযোগ করার চেষ্টা করছেন।

কুমারস্বামী কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পাকে সব বিষয়ে কেন্দ্রের সামনে “অসহায়” বলে বর্ণনা করেন। উনি বলেন  কোনও কিছুর জন্য রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের কারোর প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাওয়ার সাহস নেই। তিনি অভিযোগ করেন যে এর একটি উদাহরণ হ’ল যখন প্রধানমন্ত্রী মোদী  মুখ্যমন্ত্রী এবং অন্যান্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের মধ্যবর্তী রাতে ইসরো সদর দফতর ছেড়ে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন।

কুমারস্বামী বলেছিলেন, মুখ্যমন্ত্রী (ইয়েদিউরাপ্পা) এবং একজন উপ-মুখ্যমন্ত্রী সেখানে গিয়েছিলেন … তাঁর সাথে দু’জন তিনজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও ছিলেন। তিনি বলেন যে মোদী তাদের সেখান থেকে চলে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন এবং বলেছিলেন যে তাঁর সেখানে থাকার দরকার নেই। এরপর সকলে সেখান থেকে চলে আসেন। কুমারস্বামী প্রধানমন্ত্রীকে ISRO এর চন্দ্রযান-২ অভিযানের জন্য অশুভ বলে মন্তব্য করেছেন। যা  নিয়ে এখন রাজনৈতিক মহলে তুমুল বির্তক তৈরি হয়েছে।

Close