বড় ঘোষণা মমতার! এবার রেশন থেকে মিলবে বিনামূল্যে চাল

0
73

করোনাভাইরাস নিয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে নতুন পদক্ষেপ করল রাজ্য সরকার। রেশন দোকান থেকে ৭ লাখ ৮৫ হাজার মানুষকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে চাল দেওয়া হবে। ২ টাকা কেজি দরে মাসে ৫ কেজি করে ব্যক্তি পিছু চাল পাওয়া যায় রেশন দোকান থেকে। সেই চালটাই এবার বিনামূল্যে দেওয়া হবে।

দিন দু’য়েক আগেই বড় ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় খাদ্য ও গণবণ্টন মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান৷ তিনি জানিয়েছেন, এবার থেকে রেশনে একসঙ্গে ৬ মাসের খাদ্যশস্য তোলা যাবে৷ দেশের ৭৫ কোটি মানুষ গণবণ্টন সিস্টেমের আওতায় পড়েন। এবার থেকে চাইলে তাঁরা ৬ মাসের খাদ্যশস্য একসঙ্গে তুলে নিতে পারবেন। এ ব্যাপারে রাজ্য সরকারগুলির কাছেও নির্দেশ পাঠানো হচ্ছে। এরই মধ্যে রাজ্য সরকার ফ্রিতে গরিব মানুষকে ২ টাকা কেজি দরের চাল দেওয়ার ঘোষণা করল।

এই প্রসঙ্গে রামবিলাস পাসোয়ানের দাবি, “শুধু পশ্চিমবঙ্গে নয়, গোটা দেশেই কম দামা গরিবেদের চাল, গম দেওয়া হয়। আর তার জন্য ভর্তুকির টাকার সিংহভাগই বহন করে কেন্দ্র। সুতরাং, পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এই সিদ্ধান্তে রাজ্য সরকারের কোনও চাপ হবে না। ”

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন করোনা সতর্কতা নিয়ে জরুরি সাংবাদিক বৈঠক করেন নবান্নে। সেখানে তিনি বলেন, ৫০ শতাংশ করে সরকারি কর্মচারী বাড়ি থেকে কাজ করবেন আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত। অর্থাৎ ‘রোটেশন’ পদ্ধতিতে দফতরে যোগ দিতে হবে রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের।

গতকালই কেন্দ্রীয় সরকার বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছিল তাঁদের আমলা ও অফিসার পদমর্যাদার কর্মচারীদের অফিসে যেতে হবে না। তাঁরা কাজ করবেন বাড়ি থেকে। শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গ সরকারও জানিয়ে দিল, সোমবার থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ৫০ শতাংশ কর্মচারীকে দফতরে যেতে হবে। বাকিরা কাজ করবেন বাড়ি থেকে।