অমিত শাহের হুঁশিয়ারি! মে মাসেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ফিনিশ।

এই মুহূর্তে বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে একের পর এক লোকসভা নির্বাচনের প্রচার সভা করে চলেছে। আর প্রতিটি সভাকে আটকানোর চেষ্টা করছে রাজ্য সরকার অর্থাৎ তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু তারা সফল হচ্ছে না বরং তৃণমূলের আটকানোর প্রয়াস বিজেপিকে আরো বেশি করে নিয়ে জেদি করে তুলছে এবং আরও ভয়ংকর ভাবে মাঠে নামছে বিজেপি। এবং তৃণমূলকে একের পর এক কথার জালে বিদ্ধস্ত করে দিচ্ছে।

অনেক বাধা কাটিয়ে এইদিন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার কাঁথিতে সভা করতে আসেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। এবং তিনি সভামঞ্চ আসার সঙ্গে সঙ্গে এই কথাটি বলেন যে “মে মাসেই তৃনমূল ফিনিশ” আরো এনার এই কথা শোনার পর চারিদিক থেকে হাততালি ভেসে আসে সবাই তাকে স্বাগত জানায়।

এই দিন অমিত শাহ তার সভা মঞ্চ থেকে তৃণমূলকে আরো কঠিন ভাষায় আক্রমণ করেন। তিনি বলেন যে আমাদের সকলের পাশে আছে পশ্চিমবঙ্গবাসী। পশ্চিমবঙ্গ কে পাশে কে নিয়েই আমরা ফের একবার প্রধানমন্ত্রী বানাবো নরেন্দ্র মোদিকে। এবং ভোট গণনার দিন দুপুর দুটোর সময় তৃণমূল একেবারে ধুয়ে মুছে পরিষ্কার হয়ে যাবে বাংলা থেকে। তৃণমূলকে পুরোপুরিভাবে ফিনিশ করে দেবে বাংলার জনগণ। সেই সাথে তিনি বলেন বিজেপি পশ্চিমবঙ্গ ক্ষমতায় এলে কোনো বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী পশ্চিমবঙ্গে ঢুকতে পারবে না। এবং সারদার সমস্ত টাকা প্রত্যেকটা গরিব মানুষ কে ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

এছাড়াও এই দিন উনি বললেন যে বাংলার মানুষকে কোন কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্পের সাহায্য পেতে দিচ্ছে না মমতা সরকার। ভারত সরকার দেশের গরীব মানুষদের সুবিধার কথা ভেবে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প টি চালু করেছে কিন্তু তৃণমূল কংগ্রেসে সেই প্রকল্পের কার্ড গুলি বিলি করার বদলে সেগুলি ছিঁড়ে ফেলে দিচ্ছে। তার ফলে পশ্চিমবঙ্গবাসী সে সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। কিন্তু রাজ্যে বিজেপি ক্ষমতায় এলে কোনো গরিব মানুষ বিনা চিকিৎসায় মারা যাবে না।
#অগ্নিপুত্র