fbpx
দেশনতুন খবরপশ্চিমবঙ্গভারতীয় সেনামতামতরাজনৈতিক

তোষণনীতি ছিঃ তৃণমূল! পাকিস্তান কে এইভাবে দোষারোপ করা ঠিক নয়: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করলেন এক মন্তব্য। উনার দাবি পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা নিয়ে এখনই পাকিস্তান কে দোষারোপ করা ঠিক নয়। এইদিন সন্ধ্যায় যখন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নবান্ন থেকে বের হচ্ছিলেন সেই সময় উনাকে প্রশ্ন করা হয় আপনার কি প্রতিক্রিয়া এই জঙ্গি হামলার ব্যাপারে? উনি এই প্রশ্নের উত্তরে বলেন আমি পররাষ্ট্র ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করি না, এই ব্যাপারে দেশের সিদ্ধান্তকেই মেনে নি। তবে এইভাবে তদন্ত না করে পাকিস্তান কে দোষ দেওয়া ঠিক নয় কারণ এই সব বিষয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তাই আগে সঠিক তদন্ত হোক তারপর দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হোক।

মোদী সরকার পুলওয়ামা কাণ্ডে যখন সমস্ত দোষ পাকিস্তানে উপর চাপিয়ে দিচ্ছে। এবং ইসলামাবাদ কে একঘরে করে দেওয়ার চেষ্টা করছে কূটনৈতিক দিক দিয়ে সেই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এরূপ মন্তব্য সত্যি বিবেচনা সাপেক্ষ।
বৃহস্পতিবার দুপুরে পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় পর প্রধানমন্ত্রী সরাসরি পাকিস্তান নাম না করে জনিয়ে দেন, সেনাদের এই আত্মত্যাগ বিফলে যাবে না। দোষীদের উচিৎ শিক্ষা দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই বক্তব্যের তীর যে পাকিস্তানের দিকে সেটা ভালোভাবেই বোঝা যাচ্ছে কারণ হামলায় দায় স্বীকার করে নেওয়া জঙ্গি সংগঠন জাইস-ই-মহম্মদ এর প্রধান মাসুদ আজহার এই মুহূর্তে পাকিস্তানে রয়েছে।

কিন্তু সারা দেশ যেখানে পাকিস্তানের উপর বদলা নেওয়ার জন্য ফুঁসছে সেখানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কেন এইরূপ মন্তব্য করলেন? এই ব্যাপারে বিজেপি নেতারা দাবি করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সংখ্যালঘুদের তোষণ করার জন্য এই মুহূর্তে এতটাই মেতে রয়েছেন যে, উনি ভোটের জন্য দেশের সেনাবাহিনীর উপর হামলায় পাকিস্তান কে দোষ দিতে নারাজ। শুধুমাত্র ভোটের জন্য উনি সেনাবাহিনী কেও অপমান করতে পারেন।

উল্লেখ্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এইরূপ মন্তব্যের পর রাজনৈতিক মহলের অনেকেই দাবি তুলেছেন যে, দেশের সেনাবাহিনী নিয়ে মমতা যে রাজনীতি করছে সেটা কোনো ভাবেই করা উচিৎ নয়।
#অগ্নিপুত্র

Open

Close