করোনা তাড়াতে গো-মুত্র বিক্রি করছিল মুসলিম ব্যাক্তি! তারপর ধরে নিয়ে গেলো পুলিশ

0
87

কেন্দ্রের মোদী সরকার (Modi Sarkar) দেশে করোনা ভাইরাসে (Corona virus) আক্রান্তদের সাহায্যের কথা ঘোষণা করে দিয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় জানিয়েছে যে করোনা ভাইরাসে মৃত ব্যাক্তিদের পরিবার পিছু চার লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য দেওয়া হবে।

এর ফলে উদ্ধার কার্যে এবং প্রতিক্রিয়া গতিবিধিতে যুক্ত মানুষদের সুবিধা হবে।করোনা (corona virus) নিয়ে সারা বিশ্ব যেন আতঙ্কে ভুগছে। আতঙ্ক যেন পিছুই ছাড়তে চাইছে না।  কেরালায় কোভিড -১৯ সচেতনতা এবং স্যানিটাইজারদের বিতরণ করার জন্য রোবট মোতায়েন করা হয়েছে।

ডানকুনিতে দিল্লি রোডে একটা টেবিলে গোমূত্র-গোবর নিয়ে বিক্রি করছেন শেখ মামুদ আলি। গাই গরু, বকনা, জার্সি সবকিছুর মূত্রই ্রয়েছে আর তার দাম ভিন্ন ভিন্ন।  গরুর মূত্র লিটার প্রতি ৪০০ টাকা। হুগলির এক বিজেপি নেতা প্রবাদ আউড়ে বলেন, “বিশ্বাসে মেলায় বস্তু, তর্কে বহুদূর। গোমূত্রে যদি করোনা সারে তা দেশবাসীর জন্যই ভাল।” ভারতেও এই রোগের আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ১১০ জন। এবং তাঁর মধ্যে ইতিমধ্যেই ২ জনের মৃত্যু করোনার জন্য। দিল্লির প্রথম করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি এবার বিশ্ববাসীর উদ্দেশ্যে তিনি বার্তাও দিলেন।

তিনি জানান আতঙ্কের কারন নেই, চিকিতসা সম্ভব।চিকিতসা চলে প্রায় ১৪ দিন আর এখন তিনি আগের থেকে অনেকটাই সুস্থ। তবে ইতিমধ্যেই মিলেছে সুখবর। ১ লক্ষ ২৮ হাজার করোনা আক্রান্ত মানুষের মধ্যে ৬৯ হাজার জন  এখন পুরোপুরি সুস্থ।  তার মধ্যে তিন জন জয়পুরের বাসিন্দা। মোট ১০ জনকে পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে তারা এখন করোনা মুক্ত। এর মধ্যেই করোনার প্রকোপে বেশ কিছু মানুষের বাড়ি থেকে বেরোনো বন্ধ হয়ে গেছে। আর এসব কিছুই উপেক্ষা করে রাজ্যে স্কুল , কলেজ বন্ধ হয়ে গেছে। আর কি ভাবে তা নিরাময় করা হবে সেই চিন্তিত সবাই । আর এখন গো-মূত্রের মাধ্যমে করোনার আতঙ্ক কমানোর চাস্টা চলছে।