অমিত শাহের একটি ঘোষণায় সেনা ক্যান্টিন থেকে সরিয়ে ফেলা হল সমস্ত বিদেশী সামগ্রী

মাইক্রোওয়েভ ওভেন থেকে শুরু করে জুতো আর ব্র্যান্ডেড উৎপাদন যেমন টমি হিনফিগার থেকে শুরু হয়ে ১ হাজারের বেশি বিদেশী সামগ্রী গুলোকে কেন্দ্রীয় পুলিশ কল্যাণ ভাণ্ডার (KPKB) থেকে বের করে দেওয়া হল। KPKB প্যারামিলিটারি ক্যান্টিন চালানো প্রধান সংস্থা। আপনাদের জানিয়ে দিই, আজ থেকে সেনার ক্যান্টিনে শুধুমাত্র স্বদেশী সামগ্রীই বিক্রি হবে।

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে KPKB ক্যান্টিনে এবার থেকে শুধু মেড ইন ইন্ডিয়া’র সামগ্রীই বিক্রি হবে। এছাড়াও স্কেচর্স, ফেরেরো, রেড বুল এর মতো সামগ্রী গুলোকে আমদানি করা কোম্পানি গুলোকে ডি লিস্ট করা হয়েছে। KPKB ক্যান্টিন অনেক কোম্পানির উৎপাদ গুলোকে নেবে না বলে জানিয়ে দিয়েছে।

উল্লেখ্য, ওই কোম্পানি গুলোর থেকে কিছু প্রয়োজনীয় তথ্য চাওয়া হয়েছিল, যেটা তাঁরা সময় মতো দিতে পারেনি। KPKB সমস্ত সামগ্রীকে তিনটি শ্রেণীতে বিভক্ত করেছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয়ের তরফ থেকে জারি আদেশে বলা হয়েছে যে, ভারত সরকার KPKB এর মাধ্যমে শুধুমাত্র স্বদেশী সামগ্রীই বিক্রি করবে। আপনাদের জানিয়ে দিই, কেন্দ্রীয় পুলিশ ক্যান্টিনের ব্যবহার সিআরপিএফ, বিএসএফ, আইটিবিপি, সিআইএসএফ, এসএসবি, এনএসজি আর অসম রাইফেলস এর ১০ লক্ষ কর্মীর ৫০ লক্ষ পরিবার করে।

গোটা দেশে ১ হাজার ৭০০ এর বেশি কেন্দ্রীয় পুলিশ ক্যান্টিন আছে। এর মধ্যে মুদির সামগ্রী, জামা-কাপড়, উপহার সামগ্রী এবং অন্যান্য সামগ্রী বিক্রি হয়। এই ক্যান্টিন গুলোতে বছরে ২ হাজার ৮০০ কোটির বেশি টাকার ব্যবসা হয়। এই সমস্ত ক্যান্টিন গুলো থেকে বিদেশী সামগ্রী বর্জন করে স্বদেশী সামগ্রী আপন করে নেওয়া প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর লোকাল ফর ভোকাল এর অভিযানকে সফল করার উদ্দেশ্যে করা হয়েছে।