fbpx
আন্তর্জাতিকভারতীয় সেনা

Breaking News! উচ্চ পর্যায়ে বৈঠক করল পাকিস্তান। দেখে নিন হামলার জবাবে ভারতের বিরুদ্ধে কী কী সিদ্ধান্ত নিল পাকিস্তান।

পুলওয়ামা হামলার বদলা নিল ভারতীয় সেনা। ভারতীয় বায়ু সেনা আজ ভোর রাতে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে নয় বরং পাকিস্তানের ভিতর ঢুকে একের পর এক জাইশ-ই-মহম্মদ এর কন্ট্রোল রুম ধ্বংস করে এসেছে। পাকিস্তানে ঢুকে ভারত এয়ার স্ট্রাইক করে দিল কিন্তু পাকিস্তানের গোয়েন্দা থেকে শুরু করে পাকিস্তানের সেনা কেউ বিন্দুমাত্র টের পায় নি, আর এরপরই পাকিস্তানের ঘুম উড়ে গিয়েছে। আর তারপরেই নিজেদের প্রাণ বাঁচাতে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তড়ীঘড়ি উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসেন। আর সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন পাক সেনা প্রধান কামার জাভেদ, মামুদ কুশেরি যিনি পাক বিদেশমন্ত্রী এছাড়াও ছিলেন পাক প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একাধিক উচ্চ কর্তা ও আমনা। এই ঘটনার পর পাক সংবাদ সূত্রে জানা গিয়েছে, ভারত সীমান্ত লঙ্ঘন করে যে হামলা চালিয়েছে পাকিস্তানের উপর সেটা পাকিস্তান আন্তর্জাতিক মহলে তুলে ধরবে। এছাড়াও জানা গিয়েছে, পাকিস্তান এই ঘটনা তুলে ধরবে তাদের মিত্র দেশ এবং রাষ্ট্রসঘের কাছে।

বিশেষ সূত্রে পাওয়া খবর অনুযায়ী, পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী কুরেশি সেখানে উপস্থিত সকল কে পাক বায়ুসেনার প্রস্তুতি সম্পর্কে ধারণা দিয়েছেন। এমনকি ওই বৈঠকে এটা নিয়েও বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে যে, ভারতের এই এয়ার স্ট্রাইকের জবাবে পাক সেনা কি প্রস্তুতি নিতে চলেছে। তথ্য অনুযায়ী জানা গিয়েছে, পাকিস্তানের ভূমি এবং স্থল এই দুই সীমা সুরক্ষিত করার ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে এই বৈঠকে। এছাড়াও বৈঠকের পর পাক বিদেশমন্ত্রীর তরফে জানানো হয়েছে যে, নিজেদের আত্মরক্ষার তাগিদে জবাব দেওয়ার অধিকার পাকিস্তানেরও আছে।

পাকিস্থানী সংবাদ মাধ্যম ডন জানিয়েছে যে, ভারতের বায়ুসেনা মঙ্গলবার ভোরে ১২ টি মিরাজ, ২০০০ টি জঙ্গিবিমান নিয়ে উড়তে শুরু করে পাক অধিকৃত কাশ্মীরে। সেই সময় সেই বিমান গুলি থেকে পাকিস্তানে অবস্থিত জাইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গিঘাঁটি গুলি লক্ষ্য করে ১০০০ কেজি বোমা ফেলা হয়। মাত্র ২০ মিনিটের ছোটো অপারেশন চালিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় জাইশ-ই- মহম্মদ এর জঙ্গি সংগঠন গুলি। এবং এয়ার স্ট্রাইক চালানোর পর সেই বিমান গুলি পুনরায় ফিরে যায় ভারতে। আর তারই জবাবে পাকিস্তান এখন তাদের পরিকল্পনা ঠিক করছে এইভাবে বৈঠক করে।
#অগ্নিপুত্র

Open

Close