মোদীর ৫৬ ইঞ্চির দমে ধ্বংস হল পাকিস্তানের অর্থনীতি, এক ঝটকায় পাকিস্তানের ৭০০ কোটি টাকায় চুনা লাগালো মোদী সরকার।

পুলওয়ামা কাণ্ডের পরই মোদী শত্রু দেশ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে 56 ইঞ্চির বদলা নেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন। পাকিস্তান হয়তো তা ঘুণাক্ষরেও বুঝতে পারেনি। কিভাবে 56 ইঞ্চির বদলা মোদী নেবেন তা দেখাই দেশবাসীর কাছে প্রধান লক্ষ্য হয়ে দাঁড়িয়েছিল। কিন্তু এবার যে মোদীর হুমকি সত্যি হল তার প্রমান মিলল। চলতি আর্থিক বছরে আশি হাজার কোটি টাকার বিনেবেশ পূরণ করেছে ভারত। শুধু তাই নয় লক্ষ্য পূরণের থেকেও বেশি রান করে ফেলেছে দেশের সরকার। শত্রু পাকিস্তানের সহায়তা নিয়েই ভারতের এই সাফল্য কিছুটা হলেও সম্ভব হয়েছে।

ভারতের এই সাফল্যের কথা প্রকাশ্যে এনেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুন জেটলি। চলতি আর্থিক বছরে ভারত সরকার পঁচাশি হাজার কোটি টাকা বিনেবেশ-এর লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করেছে। যা শত্রুদেশ পাকিস্তানের তিন হাজার কোটি টাকা শেয়ারের মাধ্যমেই এই বিনেবেশ সম্ভব হয়েছে। ভারত সাতশো কোটি টাকা আয় করতে পেরেছে শুধুমাত্র পাকিস্তানের জন্যই। আর সেই শেয়ার এখন ভারতীয় নিবন্ধিত বাজারেই স্থগিত আছে।

2018 সালেই কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেটে শত্রুদেশের সাতশো কোটি টাকা শেয়ার বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় সেই সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ডিপার্টমেন্ট অফ ইনভেস্টমেন্ট এন্ড পাবলিক অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট-এর তরফ থেকে শেয়ার বিক্রি করে পাঁচাশি হাজার কোটি টাকার বিনেবেশ পূরণ করে ফেলে ভারত। যার মাধ্যমে মোট দশ হাজার ছশো কোটি টাকা ভারতের ভান্ডারে যুক্ত হয়। এর পরবর্তী আর্থিক বছরে ভারতের বিনেবেশ-এর লক্ষ্য রয়েছে 90 হাজার কোটি টাকা।

শত্রু সম্পত্তি কি-
দেশভাগের পর থেকে চিন ও পাকিস্তানে বসবাসকারী ভারতীয়দের সম্পত্তিকে শত্রুদের সম্পত্তি বলে ধরা হয়। 1968 সালে সংসদ আইন অনুযায়ী সেই সম্পত্তির ওপর ভারতের অধিকার জন্মায়। আর তারপর থেকে সেগুলো স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের অধীনে রয়েছে। এরপর 2017 সালের নতুন নিয়ম অনুযায়ী ভারতের হাতে সেই সম্পত্তি থাকলেও চিন ও পাকিস্তানে বসবাসকারী মানুষদের সম্পত্তিকে শত্রু সম্পত্তি বলে ধরে নেওয়া হয়। আর এভাবেই শত্রু সম্পত্তি তিন হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে।