মাত্র এক টাকায় স্যানিটারি ন্যপকিন, মোদীর ঘোষণায় পঞ্চমুখ গোটা ভারত

লালকেল্লা থেকে স্বাধীনতা দিবসের ভাষণে নারীশক্তির বিকাশের পক্ষে জোর সওয়াল করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (narendra modi)। এই নিয়ে টানা সাতবার দিল্লির লালকেল্লায় তেরঙ্গা উড়িয়ে ভাষণ দিলেন মোদি। ভাষণে তিনি বলেন তাঁর সরকার নারীদের উন্নয়ন ও ও তাদের শক্তিশালী করে তোলার পথে বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়েছে। তাঁর বক্তব্যে স্যানিটারি প্যাডের উল্লেখ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় এদিন প্রশংসিত হলেন প্রধানমন্ত্রী।

বলা হচ্ছে এর মাধ্যমে তিনি মেয়েদের ঋতুচক্র নিয়ে সামাজিক দ্বিধা দূর করার চেষ্টা করেছেন। তিনি বলেন তাঁর সরকার মেয়ে ও বোনেদের শারীরিক সুস্থতার বিষয়টি নিয়ে ক্রমাগত চিন্তা করছে। দেশের ৬ হাজার জনৌষধি সেন্টার থেকে প্রায় পাঁচ কোটি মহিলা এক টাকায় স্যানিটারি প্যাড পাচ্ছেন। তাদের বিয়ের জন্যও সরকার বিশেষ কমিটি তৈরী করেছে যাতে সময়মত টাকার সদ্ব্যবহার করা যায়। স্বাধীনতার দিবসের সকালে লালকেল্লা থেকে তাঁর ভাষণে এদিন মোদি আরও বলেন সরকার মহিলাদের সশক্তিকরণের জন্য কাজ করে চলেছে। নৌবাহিনী ও এয়ারফোর্স মহিলাদের কমব্যাট ফোর্সেও নিয়োগ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন মহিলারা এখন নেতৃত্বে আসছেন। এই সরকার তিন তালাক প্রথা রদ করেছে বলেও তাঁর ভাষণে উল্লেখ করেন মোদি। মোদির এই বক্তব্যের পর সোশ্যাল মিডিয়া তাঁর প্রশংসার বন্যায় ভেসে যায়। বেশিরভাগ নেটিজেন দাবি করেন দেশের প্রধানমন্ত্রী তাঁর জাতির উদ্দেশে বার্তায় মেয়েদের ঋতুচক্রের উল্লেখ করে এক বিরল নজির স্থাপন করেছেন।

নেটিজেনরা বলেন যদি কোনও পুরুষকে স্যানিটারি প্যাড দোকান থেকে আনতে বলা হয় তাহলে তারা কখনই তা করেন না, কেন করেন না তা তারাই জানেন। কিন্তু আমাদের প্রধানমন্ত্রী তাদের আরও বড় পথের খোঁজ দিয়ে সস্তায় একই জিনিস পাওয়ার উপায় বললেন। এই পুরুষকেই তো দেশের চাই। তারা আরও বলেন, অন্য কোনও দে্শের প্রধানমন্ত্রী কি ঐতিহাসিক কোনও প্ল্যাটফর্ম থেকে এভাবে নারীদের বিকাশ ও স্যানিটারি প্যাড বিতরণের কথা একসঙ্গে বলতে পারতেন? যদি এটা উন্নতির নজির না হয় তবে কোনটা হতে পারে?  লালকেল্লায় এদিন এক স্বল্প আয়োজনের অনুষ্ঠানে প্রায় এক ঘণ্টা জাতির উদ্দেশে বক্তব্য রাখেন প্রধানমন্ত্রী।