করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ লড়তে নিজের বেতন কমালেন প্রধানমন্ত্রী মোদী, সাথে রাষ্ট্রপতি ও সাংসদরাও নেবেন কম বেতন

করোনা ভাইরাসের সাথে লড়াই করার জন্য কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলি সমস্ত শক্তি ঝুঁকে দিয়েছে। এর মধ্যে একটা বড় খবর দেশের সাংসদ থেকে সামনে আসছে। সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর জানিয়েছেন যে করোনার ভাইরাস এর বিরুদ্ধে লড়াই এর জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) এবং সমস্ত সংসদ সদস্যদের পরবর্তী ১ বছরের জন্য ৩০% শতাংশ বেতন কমিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এছাড়াও এমপিদের তহবিলের টাকাও কেন্দ্র সরকারের এক বিশেষ ফান্ডে জমা হবে। রাষ্ট্রপতি, উপরাষ্ট্রপতি,প্রধানমন্ত্রী, সইচ্ছায় বেতন দান করবেন বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভাদেকার। এপ্রিল মাসের ১ তারিখ থেকে নিয়মটি লাগু হবে বলে জানা গেছে।

আগামী দু বছরের জন্য এমপি ল্যাড স্থগিত করে দেওয়া হবে। ফলে প্রায় ৮ হাজার কোটি টাকা জমা করা হবে। প্রতিজন এমপি বছরে ৫ কোটি টাকা কাজ করার সুযোগ পান। কেন্দ্রীয়মন্ত্রী প্রকাশ জাবেদকড় বলেছেন দেশ করোনা ভাইরাসের মতো মহামারির সাথে লড়াই করার জন্য এই সিধান্ত নিয়েছে।

জানিয়ে দি, কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে দেশে ২১ দিনের লকডাউন জারি রয়েছে। যার কারণে দেশ আর্থিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে দেশের খরচা দারুন পরিমাণে বেড়েছে। সমস্ত কিছুর উপর বিবেচনা করেই সরকার মন্ত্রীদের বেতন কাটার মতো সিধান্ত নিয়েছে। প্রসঙ্গত ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য কেন্দ্র সরকার সমস্ত রাজ্য গুলিকে ও দেশের জনতার জন্য বড় আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছে।