fbpx
দেশনতুন খবরভারতীয় সেনামতামত

এবার রাষ্ট্রপতির ভাষণে উঠে এল লড়াকু বিমান রাফায়েলের প্রয়োজনীয়তা। প্রশংসা করেলেন মোদী সরকারের।

এতদিন বিজেপি সরকারকে চাপে রাখার জন্য কংগ্রেস নানা রকম মিথ্যা অভিযোগ তুলে রাফায়েল নিয়ে সরব হয়েছেন। এবং দেশবাসীকে নানা ভাবে মিথ্যা বুঝিয়েছে। আর এবার রাফায়েল নিয়ে বলতে কথা শোনা গেল রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের ভাষণে। এই দিন সংসদে বাজেট পেশ করার সময় সংসদে সেন্ট্রাল ভবনের শাসক দল এবং বিরোধী দলের অনেক নেতা নেত্রী উপস্থিত ছিলেন সেই সময় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন এই রাফায়েল বিমানের প্রয়োজনীয়তা সম্বন্ধে একটি তথ্য তুলে ধরেন। এরপরই চারিদিক থেকে হাততালি ভেসে আসে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের জন্য।

এইদিন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ তার ভাষণ দেওয়ার সময় বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকারের উন্নয়নমূলক দিকগুলি তুলে ধরেন। তিনি বলেন যে বিজেপি সরকার দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে খুব দ্রুত গতিতে জিএসটি চালু করা, নোটবন্দি, আয়ুষ্মান ভারত, বেটি বাঁচাও বেটি পড়াও প্রকল্পের প্রশংসা এইদিন রাষ্ট্রপতির মুখে শোনা যায়। এছাড়াও তিনি এদিন বলেন যে রাফায়েল যুদ্ধবিমান নেওয়া ভারতবর্ষের ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত। এই বিমান ভারতে আসার ফলে ভারতবর্ষ প্রতিরক্ষা দিক দিয়ে অনেক এগিয়ে গেল অন্যান্য পিছনে ফেলে। এবং এর ফলে নিজেদের শক্তি বাড়িয়ে নিল।

এছাড়াও এই দিন রাষ্ট্রপতির মুখে নাম না করে ইউপিএ সরকারের বিভিন্ন অসামাজিক কাজকর্ম গুলি প্রকাশ পেয়েছে। তিনি বলেছেন যে আগের সরকারের উচিত ছিল রাফায়েল বিমান গুলি তাড়াতাড়ি ভারতীয় সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া। কিন্তু সেই সরকার নিজেদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য ভারতবর্ষের সেনার হাতে সেগুলি তুলে দেয় নি। আর মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পরে সেগুলো ভারতে আনার ব্যবস্থা করেছেন এই দিক থেকে মোদি সরকার কে উনি অনেকটাই এগিয়ে রাখলেন পূর্ববর্তী ইউপিএ সরকার এর থেকে। আর রাষ্ট্রপতির এই কথাগুলি বলার পরে বিজেপি এবং এনডিএ সমর্থকদের করতালিতে ভেসে ওঠে সমগ্র হল টি অপরদিকে বিরোধীরা একেবারে চুপচাপ হয়ে যায়।
#অগ্নিপুত্র

Open

Close