মিগ-২১ দিয়ে এফ-১৬ কে ধ্বংস করার খবর পেয়ে অবাক হলেন পুতিন। অভিনন্দনকে স্যালুট জানাতে রাতেই ফোন করলেন প্রধানমন্ত্রীকে।

গোটা বিশ্বের সামনে নিজের এবং দেশের নাম উজ্জ্বল করলেন বায়ুসেনার উনিং কাম্যান্ডর অভিনন্দন। এই মুহূর্তে অভিনন্দনকে নিয়ে আলোচনা করছে আমেরিকা, ফ্রান্স, ব্রিটেন, রাশিয়া এবং চীনের মত শক্তিশালী দেশ। এর কারণ অভিনন্দন বাবু করেছেন এক অবাক করা কাজ। উনি ফোর্থ জেনারেশনের আমেরিকান ফাইটার জেট এফ-১৬ কে ধ্বংস করে দেয় সেকেন্ড জেনারেশনের ফাইটার জেট মিগ-২১ দিয়ে। আর অভিনন্দনের এই অদ্ভুত ঘটনায় অবাক করে দিয়েছে সবাইকে। এরপর থেকে অন্যান্য দেশের মত অভিনন্দনকে নিয়ে জোর জল্পনা চলছে সমগ্র রাশিয়া জুড়ে।
আমেরিকা ও রাশিয়ার মধ্যের সম্পর্ক আমাদের সকলেরই জানা রয়েছে। আর এই সময় উনিং কম্যান্ডার অভিনন্দনকে নিয়ে খুবই উৎসাহ দেখা দিয়েছে রাশিয়া জুড়ে।

সবচেয়ে অবাক করা ব্যাপার এটাই যে, অভিনন্দনের কাজে মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন। কেউও ভাবতে পারছে না যে, এইভাবে একটি মিগ ২১ দিয়ে এফ ১৬ কে ধ্বংস করা যায়। কিন্তু এই অসম্ভব কাজটি করে দেখিয়েছেন ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান।
আর এইদিনের এই ঘটনার পর আমেরিকার কাছে নৈতিক জয় পেয়েছে রাশিয়া প্রশাসন। এই ঘটনার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ফোন করেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন। মোদীজিকে উনি ফোন করেন ২৮ শে ফেব্রুয়ারি বিকেল বেলায়। জানা গিয়েছে ফোনে দুই দেশের মধ্যে আমেরিকার এফ-১৬ কে কীভাবে কেমন করে ধ্বংস করা হল সেই ব্যাপারে কথা অনেকক্ষণ ধরে চর্চা হয়।

এই ঘটনার পরে পাকিস্তানের পাশাপাশি উত্তেজনা ছড়ায় আমেরিকাতে। কারণ এই জেট এফ-১৬ হল আমেরিকার অত্যাধুনিক ফাইটার জেট। আর আমেরিকানরা এই ফাইটার জেট নিয়ে খুবই গর্ববোধ করেন। অন্যদিকে মিগ-২১ হল রাশিয়ার ফাইটার জেট, এছাড়াও এই বিমান অনেক পুরোনো হয়ে গিয়েছে। কিন্তু তাও এফ ১৬ হার মানলো মিগ ২১ এর কাছে।
এই অসম্ভব কাজ কে সম্ভব করে তুললেন ভারতের এয়ারফোর্স এর উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। ইনি ফোর্থ জেনারেশনের ফাইটার জেট কে ধ্বংস করে দিয়েছেন মাত্র সেকেন্ড জেনারেশনের ফাইটার জেট দিয়ে। আর এই অসম্ভব কে সম্ভব করে উনি বিশ্বের সেরা পাইলটদের মধ্যে একজন হয়ে উঠলেন।

পাইলট অভিনন্দন এই বিশেষ কাজ করার পর সমগ্র দেশের পাশাপাশি বিশ্বের মানুষের কাছে সম্মান পেয়েছেন। আর ভারতের পর সবথেকে বেশি উনি যে দেশের সম্মান পেয়ে সেটা হল ভারতের পরম বন্ধু রাশিয়া।
#অগ্নিপুত্র